সেমিতে পাকিস্তান মানেই নিউজিল্যান্ডের হার

হারলেও বাবরকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন
হারলেও বাবরকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনছবি : সংগৃহীত

১৯৯২ থেকে ২০২২। ত্রিশ বছরে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিলিয়ে মোট চারটি সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান। প্রতিবারই জয়ী দলের নাম পাকিস্তান। সর্বশেষ আজ বুধবার সিডনিতে, যেখানে অপ্রতিরোধ্য নিউজিল্যান্ড স্রেফ ওড়ে গেছে বাবর আজমদের সামনে।

সেমিফাইনালে দুই দলের দ্বৈরথ শুরু ১৯৯২ বিশ্বকাপ থেকে। সেবার নিউজিল্যান্ডেই হয়েছিল আসরটি। সেমিতে মার্টিন ক্রোর নিউজিল্যান্ডকে ৪ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল পাকিস্তান। ইংল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথম বিশ্বকাপও জিতেছিল ইমরান খানরা।

হারলেও বাবরকে অভিনন্দন জানাতে ভোলেননি কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন
নিউজিল্যান্ডকে উড়িয়ে ১৩ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনালে পাকিস্তান

১৯৯৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপেও দুই দলের দেখা হয়েছিল সেমিফাইনালে। ম্যানচেস্টারে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়েছিল পাকিস্তান, ১৫ বল হাতে রেখে। যদিও ফাইনাল জেতা হয়নি সেবার তাদের। হারতে হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার কাছে।

ওয়ানডে বিশ্বকাপের মতো প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের দেখা হয়েছিল সেমিতে। ২০০৭ সালে কেপটাউনের সেই ম্যাচে ৬ উইকেটে জিতেছিল পাকিস্তান। তবে ফাইনালে পাক শিবির হেরে যায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের সঙ্গে।

চতুর্থবারের মোকাবিলা হলো দুই দলের এবার সিডনিতে। যেখানে নিউজিল্যান্ডকে সাত উইকেটে হারিয়ে মেলবোর্নের ফাইনালের টিকিট পেয়েছে বাবর আজমরা। ফাইনালে পাকিস্তান খেলবে ইংল্যান্ড অথবা ভারতের সঙ্গে। ১৩ বছর পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জেতার হাতছানি পাকিস্তানের।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com