ইইউ নেতাদের কিয়েভ সফরের মধ্যেই বিমান হামলার সাইরেন

কিয়েভে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডার লেয়েনকে স্বাগত জানান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।
কিয়েভে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডার লেয়েনকে স্বাগত জানান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।ছবি : সংগৃহীত

রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরুর পর প্রথমবারের মতো ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনা করতে দেশটির রাজধানী কিয়েভ সফর করছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নেতারা। তাদের এ সফরের মধ্যেই ইউক্রেনজুড়ে বিমান হামলার সাইরেনের শব্দ শোনা গেছে। তবে এ সতর্কতা জারির পর নতুন করে কোনো হামলার খবর পাওয়া যায়নি। খবর রয়টার্সের।

আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযান শুরুর এক বছরপূর্তি হবে। এ উপলক্ষে ইউক্রেনের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করতে কিয়েভ সফর করছেন ইইউ নির্বাহী কমিশনের প্রধান উরসুলা ভন ডার লেইন এবং আঞ্চলিক জোটটির চেয়ারম্যান চার্লস মিশেল। এ সময় ইইউ-ইউক্রেন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলনে ইইউ নেতারা রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরও নিষেধাজ্ঞা এবং ইইউতে ইউক্রেনে যোগদানের বিষয়ে আলোচনা করবেন।

আজ শুক্রবার সকালে কিয়েভ পৌঁছে এক টুইটবার্তায় চার্লস মিশেল বলেন, আমরা আমাদের সংকল্প থেকে পিছু হটব না। ইইউতে আপনাদের যাত্রার প্রতিটি পদক্ষেপে আমরা সহযোগিতা করব।

কিয়েভে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ফন ডার লেয়েনকে স্বাগত জানান ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।
ইউক্রেন যুদ্ধে ভিন্ন অস্ত্র ব্যবহারের ইঙ্গিত দিলেন পুতিন

এদিকে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে ইইউর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তবে যুদ্ধের বর্ষপূর্তিতে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যে নিষেধাজ্ঞার তালিকা প্রস্তুত করছে ইইউ, তা ইউক্রেন সরকারের প্রত্যাশা পূরণ না-ও করতে পারে।

অন্যদিকে, গত বছর রুশ আক্রমণের মুখে ইইউতে যোগদানের আবেদন করেছিল ইউক্রেন। এ আবেদন গ্রহণ করলেও দেশটিকে দ্রুত সদস্যপদ দেওয়ার আহ্বান প্রত্যাখ্যান করেছিল জোটটি। তবে ইউক্রেনের ইইউতে যোগদানের বিষয়ে বেশ কিছু চাহিদপত্র প্রণয়ন করেছে ইইউ কর্মকর্তারা। আর এ প্রক্রিয়ায় দেশটির সদস্যপদ পেতে অনেক বছর লেগে যাবে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com