আইএমএফ ঋণ দিতে রাজি : প্রথম কিস্তি আগামী ফেব্রুয়ারিতে

সচিবালয়ে আইএমএফের সঙ্গে বৈঠক শেষে ব্রিফ করছেন অর্থমন্ত্রী।
সচিবালয়ে আইএমএফের সঙ্গে বৈঠক শেষে ব্রিফ করছেন অর্থমন্ত্রী।ছবি : সংগৃহীত

সরকারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশকে ৪৫০ কোটি ডলার ঋণ দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। আগামী ফেব্রুয়ারিতে ঋণের প্রথম কিস্তি পাবে বাংলাদেশ। আজ বুধবার দুপুরে অর্থ মন্ত্রণালয় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছে। 

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আইএমএফ মিশন জানিয়েছে তাদের কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী আগামী তিন মাসের মধ্যে ঋণ প্রস্তাবের সব আনুষ্ঠানিকতা ও চূড়ান্ত বোর্ড অনুমোদন শেষ হবে। চার বছর মেয়াদে ২০২৬ সাল পর্যন্ত এই ঋণ বিতরণ করা হবে। ৭ কিস্তিতে দেওয়া হবে এই ঋণ। আগামী ফেব্রুয়ারিতে ঋণের প্রথম কিস্তি ছাড় করবে আইএমএফ। বাকি ছয় কিস্তি ছয় মাস পরপর ২০২৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত দেওয়া হবে। এই ঋণের গড় সুদহার হবে ২ দশমিক ২ শতাংশ।

গত জুলাইয়ে বাজেট সহায়তা হিসেবে আইএমএফের কাছে ৪৫০ কোটি ডলার ঋণ চেয়ে আবেদন করেছে সরকার। সেই ঋণ নিয়ে আলোচনা করতে সংস্থাটির ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ২৬ অক্টোবর ঢাকা সফরে আসেন। প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন আইএমএফের এশীয় ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের প্রধান রাহুল আনন্দ।

দলটি গত ১৫ দিন ধরে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে প্রায় ৩০টি বৈঠক করছে। আজ বুধবার সকালে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে বৈঠক করে আইএমএফ মিশন। এরপর দুপুরে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে আইএমএফের ঋণ পাওয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে অর্থমন্ত্রণালয়।

সচিবালয়ে আইএমএফের সঙ্গে বৈঠক শেষে ব্রিফ করছেন অর্থমন্ত্রী।
কঠিন শর্তে আইএমএফের লোন নেবে না সরকার : কাদের

ব্রিফিং শেষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ‘আমরা যেভাবে চেয়েছিলাম সেভাবে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণ পেতে যাচ্ছি। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে ঋণের প্রথম কিস্তি পাওয়া যাবে। আর ২০২৬ সালের মধ্যে সব ঋণ পাওয়া যাবে।’

সচিবালয়ে আইএমএফের সঙ্গে বৈঠক শেষে ব্রিফ করছেন অর্থমন্ত্রী।
আইএমএফের ঋণ যেভাবে চেয়েছিলাম সেভাবেই পাচ্ছি : অর্থমন্ত্রী

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com