জাতীয় সংগীত ইস্যুতে কোনো চাপে নেই ইরান

ইরান দলের স্ট্রাইকার মেহদি তারেমি।
ইরান দলের স্ট্রাইকার মেহদি তারেমি।ছবি : সংগৃহীত

ইংল্যান্ডের বিপক্ষের ম্যাচ দিয়ে কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের মিশন শুরু করেছিল ইরান। সেদিন খলিফা ইন্টার‌ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে জাতীয় সংগীতের সময় নির্বিকার এবং ভাবলেশহীনভাবে দাঁড়িয়ে ছিলেন ইরানের ফুটবলাররা। ধারণা করা হচ্ছে, ইরান সরকারের তোপের মুখে পড়তে পারেন ফুটবলাররা। কিন্তু ইরান দলের স্ট্রাইকার মেহদি তারেমি জানান, ইরানের জাতীয় ফুটবল দল কোনো চাপে নেই।

ইরানে চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলনের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করতে খেলা শুরুর আগে জাতীয় সংগীত না গাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন ফুটবলাররা। যা বেশ ফলাও করে প্রচার করে সংবাদ মাধ্যমগুলো। অবশ্য সেই ম্যাচের খেলা ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়নি।

বৃহস্পতিবার ওয়েলসের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে নামার আগে সংবাদ সম্মেলনে তারেমি বলেন, ‘আমরা কোনো চাপে নেই। একটি টুর্নামেন্টে ফুটবল সাংবাদিকদের অবশ্যই সম্মান প্রদর্শন করতে হবে এবং ফুটবলের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয়, এমন প্রসঙ্গ এড়িয়ে যেতে হবে।’

এদিকে ইরানের কোচ কার্লোস কুইরোজ বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রশ্ন করা কি ন্যায়সঙ্গত? এটি সংবাদপত্রের স্বাধীনতা। পাশাপাশি কোনো প্রশ্নের উত্তর না দেওয়াটা কিন্তু আমাদের অধিকার। আপনাদের আমাদের অবস্থানকে সম্মান এবং বুঝতে হবে।’

দেশে চলমান আন্দোলনে সমর্থন দিতে চায় ইরান ফুটবল দল। এ জন্য বিশ্বকাপের মঞ্চে জাতীয় সংগীত না গাওয়াসহ এবং বিজয় উদযাপন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। ইরানে বিক্ষোভে এ পর্যন্ত ৪০০-এর বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে নরওয়ের অসলোভিত্তিক সংস্থা ইরান হিউম্যান রাইটস।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com