কাতার বিশ্বকাপ : দক্ষিণ কোরিয়ার মুখোমুখি উরুগুয়ে

অনুশীলনে উরুগুয়ে ফুটবল দল।
অনুশীলনে উরুগুয়ে ফুটবল দল।ছবি : সংগৃহীত

উরুগুয়ের সেই সোনালি সময় আর নেই; কিন্তু ঝলক আছে। এডিসন কাভানি বা লুইস সুয়ারেজরা নিজেদের দিতে প্রতিপক্ষের ডিফেন্সকে গুঁড়িয়ে দিতে পারেন। সঙ্গে আছেন নুনেজের মতো তরুণরা। তাই দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে কাতার বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে তারা এগিয়ে থাকবে।

বিশ্বকাপ সাফল্যের নিরিখেও অনেক এগিয়ে লাতিন আমেরিকার দেশ উরুগুয়ে। প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপা জিতেছিল তারা। দ্বিতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ১৯৫০ সালে মারাকানা ট্র্যাজেডির জন্ম দিয়ে। তারপর পেরিয়ে গেছে ৭২ বছর। বিশ্বকাপ শিরোপা দূরের কথা ফাইনালেও উঠতে পারেনি। দিয়েগো ফোরলান-কাভানি-সুয়ারেজরা মিলে ২০১০ সালে সম্ভবনা তৈরি করলেও আগেই থেমে যেতে হয়। এবার ফোরলান নেই।

তবু দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে কাতার অভিযান শুরুর ম্যাচে সুয়ারেজ আর কাভানির জন্য এগিয়ে থাকবে তারা। আল রাইয়ানের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হবে খেলা। এবার নিয়ে ১৪তম বারের মতো বিশ্বকাপ খেলছে উরুগুয়ে।

দক্ষিণ কোরিয়ার এটি ১১তম বিশ্বকাপ। তবে টানা দশম আসরে খেলছে তারা। বিশ্বকাপের সবশেষ তিন আসরেই নকআউট পর্বে উঠেছে উরুগুয়ে। ২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছে তারা। দক্ষিণ কোরিয়া গত দুই আসরে গ্রুপ পর্ব পেরোতে পারেনি।

বিশ্বকাপ ইতিহাসে দক্ষিণ কোরিয়ার সর্বোচ্চ সাফল্য সেমিফাইনাল। ২০০২ সালে ঘরের মাঠে শেষ চারে জার্মানির বিপক্ষে হেরেছিল তারা। তবে একটা পরিসংখ্যান আজ ভয়ে রাখবে উরুগুয়েকে। তারা সর্বশেষ সাত বিশ্বকাপের ছয়টিতে প্রথম ম্যাচ জিততে ব্যর্থ হয়েছে।

সেই সাত ম্যাচে তারা ড্র করেছে তিনটিতে, হেরেছেও তিনটি। তবে রাশিয়া বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের তিন ম্যাচে কোনো গোল হজম না করে সব ম্যাচ জিতেছিল তারা।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com