রিচার্লিসন চমকে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ শুরু

জোড়া গোল দাতা রিচার্লিসনকে ঘিরে সতীর্থদের উল্লাস
জোড়া গোল দাতা রিচার্লিসনকে ঘিরে সতীর্থদের উল্লাসছবি: সংগৃহীত

প্রথমার্ধ ধুঁকলো নেইমাররা। দেখা মিলল না ছান্দসিক ফুটবল। তবে দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের চিত্র বদলে গেল ভোজবাজির মতো। গোল মিসের মহড়ায় যখন নেইমার, ভিনিসিউসরা ব্যস্ত, দায়িত্বটা কাধে নিলেন তরুণ রিচার্লিসন। করলেন নয়নকাড়া দুই গোল।

রিচার্লিসন চমকেই সার্বিয়াকে হারিয়ে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ যাত্রাটা হলো দারুণ ঝকঝকে। কাতার বিশ্বকাপে জি গ্রুপের ম্যাচে বৃহস্পতিবার রাতে সার্বিয়ার বিরুদ্ধে ব্রাজিলের জয়ের ব্যবধান ২-০।

রিচার্লিসনের শট, বল জড়ায় জালে
রিচার্লিসনের শট, বল জড়ায় জালে

ম্যাচের শুরু থেকে আধিপত্য থাকলেও গোলের দেখা মিলছিল না ব্রাজিলের। প্রথমার্ধে তাই ভক্তদের হতাশই করেছে নেইমাররা। কয়েকটি গোলের সুযোগ পেলেও তা কাজে লাগাতে পারেনি সেলেকাও শিবির।

৩৫ মিনিটে রাফিনহার দুর্দান্ত একটি শট প্রতিহত করেন সার্বিয়ার গোলরক্ষক। ৪১ মিনিটে সার্বিয়ার বক্সে ঢুকেও লক্ষ্যে শট নিতে পারেননি ভিনিসিয়াস জুনিয়র।

৪৫ মিনিটে ভিনিসিউস জুনিয়রের দারুণ ক্রসে নেইমারের বুলেট গতির শট হয় লক্ষ্যভ্রস্ট। আফসোসে পোড়ে ভক্তরা।

দ্বিতীয়ার্ধ থেকেই নতুন রুপে ব্রাজিল। আক্রমণের ধার যেন আরও বেড়ে যায়। ৬০ মিনিটে প্রথম গোল পেতে পারত ব্রাজিল। কিন্তু হয়নি। সান্দ্রোর ক্ষিপ্র গতির শট ফিরে আসে পোস্ট কাপিয়ে।

দুই মিনিট পরই প্রথম গোলের দেখা পায় ব্রাজিল। ভিনিসিউসের শট প্রথম দফায় ঠেকিয়েছিলেন সার্বিয়ার গোলরক্ষক। তবে তালুবন্দি করতে পারেননি। বল চলে যায় একটু সামনে। কালবিলম্ব না করে রিচার্লিসনের শট, বল জড়ায় জালে (১-০)।

লিড নেয়া ব্রাজিলের হয়ে ৭৩ মিনিটে দেখা মেলে আবার দুরন্ত রিচার্লিশনের। মাঝ মাঠ থেকে উড়ে আসা বলে নয়নকাড়া বাইসাইকেল কিক, বল সার্বিয়ার জালে। জোড়া গোলদাতা রিচার্লিসনকে ঘিরে তখন উৎসবের আমেজ ব্রাজিল শিবিরে।

রিচার্লিসন
রিচার্লিসন

নেইমারের পর রিচার্লিসন প্রথম ব্রাজিলিয়ান যে অভিষেক বিশ্বকাপে করলেন জোড়া গোল। ২০১৪ নিজের অভিষেক বিশ্বকাপে এমন কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন নেইমার।

৭৯ মিনিটের মধ্যে তিনটি পরিবর্তন করেন ব্রাজিল কোচ তিতে। উঠে যান লুকাস পাকুয়েতা, ভিনিসিউস ও রিচার্লিসন। নামেন রদ্রিগো, জেসুস ও ফ্রেড। একটু পর নেইমারকেও তুলে নেন কোচ। তার পরিবর্তে আসেন অ্যান্টোনিও।

ম্যাচের বাকি সময় একটু রক্ষণেই মন দেয় ব্রাজিল। সার্বিয়া প্রাণপণ চেষ্টা করেছে ব্রাজিলের জাল কাপাতে। সেই সুযোগ অবশ্য পায়নি তারা। নিজেদের জাল অক্ষত রাখেন অ্যালিসন।

ব্রাজিলের অধিনায়ক থিয়াগো সিলভা মাঠে নেমেই এক কীর্তি গড়েন। ব্রাজিলের হয়ে সবচেয়ে বয়স্ক খেলোয়াড় হিসেবে খেলছেন বিশ্বকাপ। তার বয়স ৩৮ বছর ৬৩ দিন। ছাড়িয়ে গেলেন ১৯৬৬ বিশ্বকাপে খেলা ব্রাজিলের দালমা সান্তোসকে (৩৭ বছর ১৩৮ দিন)।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com