অনিশ্চয়তার মুখে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সম্প্রচার স্বত্ব

আইসিসির লোগো।
আইসিসির লোগো।ছবি : সংগৃহীত

ডলার সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এমন পরিস্থিতিতে ডলার লেনদেনের ক্ষেত্রে নতুন নীতিমালা গঠন করেছে সরকার। শর্ত পূরণ করেও বাংলাদেশ ব্যাংকের ছাড়পত্র না পাওয়ায় অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সম্প্রচার স্বত্ব নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে জটিলতা। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশি টেলিভিশনে খেলা দেখা থেকে বঞ্চিত হতে পারেন দেশের ক্রিকেট সমর্থকরাও।

এ বিষয়ে এশিয়াটিক মাইন্ড শেয়ারের এমডি মোর্শেদ আলম বলেন, ‘বাংলাদেশ দল অংশগ্রহণ করায় বরাবরের মতো এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও দর্শকদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোর সম্প্রচার কোনো কারণে ব্যর্থ হলে খেলাধুলা নিয়ে পৃষ্ঠপোষকদের মধ্যে অনাগ্রহ তৈরি হতে পারে, যা ভবিষ্যতে দেশের ক্রীড়া অঙ্গনে প্রভাব ফেলবে।'

আইসিসির লোগো।
টি-টোয়েন্টিতে মুশফিকের পরিবর্তে কে?

আরেকটি প্রতিষ্ঠান স্পোর্ডিয়াম-এর সিইও জিয়াউদ্দিন আদিল বলেছেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংক এবং জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশনায় ফরেন এক্সেচেঞ্জ ও রাজস্ব খাতের হার নির্ধারণ করে ইতোমধ্যে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক ম্যাচগুলো দেখানোর বিষয়ে একটি পদ্ধতিগত নিয়ম প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আমরা বিগত কয়েক বছর বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খেলাগুলো এ নিয়ম-নীতি পরিপালন সাপেক্ষে সুষ্ঠুভাবে সম্প্রচার করার আয়োজন করে আসছি। কিন্তু সম্প্রতি এশিয়া কাপের মতো একটি বড় ইভেন্ট বিশেষ বিবেচনায় সম্প্রচার করার পরও আমরা সম্প্রচার স্বত্বের টাকা এখনো পরিশোধ করতে পারিনি। এ অনিশ্চয়তায় আগামী মাসে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ঢাকায় শুরু হতে যাওয়া নারী এশিয়া কাপের সম্প্রচারে জটিলতা তৈরি হতে পারে।’

বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ থেকে সম্প্রচার স্বত্ব পাওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে একটি হলো মিডিয়াকম। কোম্পানিটির সিইও অজয় কুমার কুন্ডু বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশের কয়েকটি কোম্পানি বিভিন্ন সময়ে সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষে আন্তর্জাতিক খেলার প্রচারস্বত্ব কিনেছি, যার বিপরীতে বাংলাদেশ সরকার ভ্যাট ও ট্যাক্স পেয়ে আসছে। যদি বৈধভাবে টাকা পাঠানোর অনুমোদন বা সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র না পাওয়া যায়, সে ক্ষেত্রে কিছু কিছু ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান অসাধু পথ অবলম্বন করবে। তাই বৈধপথ অর্থ পাঠানোর সুবিধার্থে যদি দ্রুতই কোনো ইতিবাচক সিদ্ধান্তে আসা যায়, সেটি সরকার ও ব্যবসায়ী উভয়ের জন্যই ভালো হবে।’

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com