ওয়াইফাইয়ের গতি ঠিকঠাক পাচ্ছেন না?

ওয়াইফাইয়ের গতি ঠিকঠাক পাচ্ছেন না?
প্রতীকী ছবি

ডেস্কটপ, ল্যাপটপ, মোবাইল ফোনসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় নানা ডিভাইসে প্রয়োজন হয় ওয়াইফাই রাউটার। কিন্তু অনেক সময় এ রুমে কানেকশন পায় তো অন্য রুমে পায় না। আবার কানেকশন এই আসে এই যায়; এমন সমস্যায় জেরবার না হতে চাইলে জেনে রাখুন কিছু টিপস।

* এখনকার রাউটারগুলো আধুনিক প্রযুক্তির হলেও যত বেশি দেয়াল কিংবা বড় ও পুরু বাধা থাকবে, সিগন্যাল তত দুর্বল হওয়ার আশঙ্কা থাকে। ঘরের কোথায় রাউটার রাখলে কাজের সুবিধা হবে, সেটা আগে ঠিক করে নেওয়া চাই। যেখানে বসে সবচেয়ে বেশি কাজ করেন, তার আশপাশে রাউটার রাখার চেষ্টা করুন।

রাউটারের কাছাকাছি অন্য ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি থাকলে তাতে সিগন্যাল বাধাগ্রস্ত হতে পারে। বিশেষ করে মাইক্রোওয়েভ ওভেন বা টিভির পেছনে রাউটার না রাখাই ভালো।

* রাউটার সব দিকেই সমানভাবে সিগন্যাল পাঠায়। সাধারণভাবে ঘরের সব জায়গায় কাজ চালাতে চাইলে ফ্ল্যাটের মাঝামাঝি খোলা জায়গায় রাউটার স্থাপন করুন।

* রাউটারের সঙ্গে পর্যাপ্ত লম্বা তার রাখুন। যেন প্রয়োজনমতো যে কোনো জায়গায় স্থানান্তর করা যায়।

* রাউটারের অ্যান্টেনা সিগন্যাল ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করে। তাই একাধিক অ্যান্টেনা থাকলে একেকটি একেক দিকে ঘুরিয়ে দিন।

* রাউটারের শক্তিশালী সিগন্যালগুলো ওপর থেকে নিচের দিকে যায়। তাই রাউটার স্থাপন করুন কিছুটা উঁচু জায়গায়।

ওয়াইফাইয়ের গতি ঠিকঠাক পাচ্ছেন না?
স্প্যাম ইমেইল ডিলিটের সহজ উপায়

* রাউটারের কাছাকাছি অন্য ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি থাকলে তাতে সিগন্যাল বাধাগ্রস্ত হতে পারে। বিশেষ করে মাইক্রোওয়েভ ওভেন বা টিভির পেছনে রাউটার না রাখাই ভালো।

* বড় ফ্ল্যাট বা বাড়ির একাধিক তলায় ইন্টারনেট সংযোগ প্রয়োজন হলে ‘ওয়াইফাই এক্সটেন্ডার’ দিয়ে কাভারেজ বাড়ানোর ব্যবস্থা করা যায়। বাড়ির কোনো অংশে যদি সিগন্যাল না পৌঁছায়, সেখানে নতুন একটি এক্সটেন্ডার লাগিয়ে নিলেই হবে। ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে নির্দিষ্ট সফটওয়্যার ডাউনলোড করে ওয়াইফাই রিপিটারের কাজ চালাতে পারেন।

* অন্য সব যন্ত্রের মতো রাউটারেরও বিশ্রাম প্রয়োজন। দিনের যে কোনো সুবিধামতো সময় কিছুক্ষণের জন্য রাউটার বন্ধ রাখুন। রাতে ঘুমানোর সময়টা এ জন্য আদর্শ হতে পারে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com