টুইটারের সিইওকে সতর্ক করে বার্তা পাঠিয়েছিলেন ইলন মাস্ক

টুইটারের সিইও পরাগ আগারওয়ালকে রীতিমত সতর্ক করে একটি বার্তা পাঠিয়েছিলেন ইলন মাস্ক।
টুইটারের সিইও পরাগ আগারওয়ালকে রীতিমত সতর্ক করে একটি বার্তা পাঠিয়েছিলেন ইলন মাস্ক।সংগৃহীত ছবি

অনেক ঘটনা, আলোচনা-সমালোচনার পর সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট টুইটার কেনার সিদ্ধান্ত বদল করেছেন টেসলার সিইও ইলন মাস্ক। তার এই টুইটার কেনার ঘোষণা এবং পরবর্তী কর্মকাণ্ড, টেক ইন্ডাস্ট্রিতে বেশ কিছুদিন আলোচনার বিষয় ছিল।

এবার টুইটার কেনা প্রসঙ্গে নতুন একটি বিষয় সামনে এনেছে এই সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট, আর তা হলো টুইটার কেনার সিদ্ধন্ত বাদ দেওয়ার আগেই টুইটারের সিইও পরাগ আগারওয়ালকে রীতিমত সতর্ক করে একটি বার্তা পাঠিয়েছিলেন মাস্ক। শুধু পরাগকেই নয়, তিনি এই একই বার্তা পাঠিয়েছন টুইটারের সিএফও নেড সেগালকেও।

মাস্কের বিরুদ্ধে টুইটারের করা মামলার বিবরণীতে এই বার্তার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। চলতি বছরের জুনের ২৮ তারিখে করা ওই বার্তায় মাস্ক উল্লেখ করেছেন, টুইটারের আইনজীবীরা কিছু কথোপকথোন ঘিরে সমস্যার সৃষ্টি করছে, যা বন্ধ হওয়া প্রয়োজন। টুইটারের পক্ষ থেকে মাস্কের কাছে টুইটার কেনার জন্য তিনি কীভাবে টাকার যোগান দেবেন, তা জানতে চাওয়ার পরেই মাস্ক এই বার্তা পাঠান।

তবে, টেসলা প্রধান যে টুইটার কেনার চুক্তি থেকে সরে এসেছেন, সেটা খুব বিস্ময়কর কিছু নয়। তার কিছু টুইট থেকে এটা আগেই আন্দাজ করা গিয়েছিল যে তিনি হয়তো টুইটার কেনার চুক্তি থেকে সরে আসবেন। তিনি প্রথমে চুক্তি সাময়িকভাবে স্থগিত করেন, পরে তিনি চুক্তি থেকে বের হয়ে আসার হুমকি দেন। পরে জুলাইয়ের ৯ তারিখে তিনি পাকাপোক্তভাবে টুইটার কেনার চুক্তি থেকে সরে আসেন। যদিও, এমন কাজের পর টুইটার কোনভাবেই মাস্ককে ছাড় দিতে রাজি নয়। এই চুক্তি স্থগিত করার প্রক্রিয়া থেকে মাস্ককে সরে যেতে বাধ্য করতে তারা এবার আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে।

টুইটারের চেয়ারম্যান ব্রেট টাইলর জানিয়েছেন, তারা মাস্কের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন। তিনি জানিয়েছেন, মাস্কের নির্ধারিত দামেই তারা টুইটার বিক্রির প্রক্রিয়া অনুসরণ করবেন এবং এজন্য তারা ডেলাওরের কোর্ট অব চ্যান্সেরিতে মামলাও দায়ের করেছেন।

এদিকে, টুইটারের এই মামলা দিয়ে ব্যঙ্গ করতে ছাড়েননি রসিক ইলন মাস্ক। তিনি নিজেই টুইটারে একটি মিম শেয়ার করেছেন, যাতে উল্লেখ ছিল- ‘প্রথমে তারা বলেছিল আমি টুইটার কিনতে পারবো না, তারপর তারা আমাকে বট ইনফো দিতে অস্বীকার করলো, এখন তারা চাইছে আমার কাছে টুইটার বিক্রি করতে, এখন তাদের কোর্টে বট ইনফো প্রকাশ করতে হবে।’

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com