ইন্সটাগ্রাম স্টোরির জন্য আসছে নতুন ফিচার

স্টোরিতে দেখা যাবে মাত্র তিনটি ছবি বা ভিডিও
ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে ক্ষেত্রে আসছে নতুন ফিচার
ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে ক্ষেত্রে আসছে নতুন ফিচারছবি : সংগৃহীত

নতুন এক ধরনের স্টোরিজ লে-আউটের পরীক্ষামূলক ব্যবহার শুরু করেছে ইন্সটাগ্রাম। এই নতুন স্টোরিজ লে-আউট ইন্সটা ব্যবহারকারীদের আপলোড করা অতিরিক্ত স্টোরিগুলো ‘হাইড’ করে বা ‘মিউট’ করে রাখবে।

সংক্ষেপে

নতুন এই ফিচারে একজন ব্যবহারকারী যে পরিমাণ স্টোরিই আপলোড করুক না কেন, স্টোরিতে দেখাবে কেবলমাত্র প্রথম তিনটি স্টোরি।

বর্তমানে, ইন্সটা স্টোরিতে একবারে একশ’র বেশি ছবি বা শর্ট ভিডিও আপলোড করা যায়। ফলে কেউ যদি একবারে এতো বেশি স্টোরি আপলোড করে তবে তা অন্য একজন ইন্সটা ব্যবহারকারীর জন্য সমস্যার সৃষ্টি করে, কারণ একজন ব্যবহারকারীর সব স্টোরি দেখা শেষ না হলে অন্য একজনের স্টোরিতে যাওয়া যায় না।

এই সমস্যার সমাধান করতেই নতুন ফিচার আনছে ইন্সটাগ্রাম। নতুন এই ফিচারে একজন ব্যবহারকারী যে পরিমাণ স্টোরিই আপলোড করুক না কেন, স্টোরিতে দেখাবে কেবলমাত্র প্রথম তিনটি স্টোরি। বাকি স্টোরিগুলো ‘হাইড’ বা ‘মিউট’ করা থাকবে। অন্য ব্যবহারকারী, যিনি স্টোরিগুলো দেখবেন, তিনি চাইলে ‘শো অল’ অপশনে ক্লিক করে বাকি স্টোরিগুলোও দেখতে পারবেন। আর যদি অপশনে ক্লিক না করা হয় তবে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই অন্য একজনের স্টোরি চালু হবে।

এই নতুন ফিচারে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন কনটেন্ট ক্রিয়েটর এবং ইন্সটাগ্রাম ইনফ্লুয়েন্সাররা। কারণ ইনস্টাগ্রাম স্বয়ংক্রিয়ভাবে তাদের প্রথম তিনটি স্টোরির পর বাকিগুলো ‘হাইড’ বা ‘মিউট’ করে দেবে।

নতুন এই ফিচারটি বর্তমানে পরীক্ষামূলক অবস্থায় রয়েছে, খুব সংখ্যক ব্যবহারকারী এটি ব্যবহার করতে পারছেন। তেমনই একজন ব্যবহারকারী ব্রাজিলের ফিল রিসেল। নতুন এই ফিচারটি তার নজরে আসার পর তিনি এই সম্পর্কিত এক টুইট বার্তায় এর সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়েছেন।

নতুন এই অপশনটি চালু হলে তা সাধারন ইন্সটাগ্রামারের জন্য বেশ সুবিধাজনক হবে। এর মাধ্যমে তারা একজনের অল্প সংখ্যক স্টোরি কিন্তু অনেক বেশি ইন্সটা ব্যবহারকারীর স্টোরি একবারে দেখতে পাবেন, যা আগে বেশ কষ্টসাধ্য ছিল।

তবে এই নতুন ফিচারে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন কনটেন্ট ক্রিয়েটর এবং ইন্সটাগ্রাম ইনফ্লুয়েন্সাররা। কারণ ইনস্টাগ্রাম স্বয়ংক্রিয়ভাবে তাদের প্রথম তিনটি স্টোরির পর বাকিগুলো ‘হাইড’ বা ‘মিউট’ করে দেবে। ফলে প্রথম তিনটি স্টোরির পর তাদের স্টোরির ‘ভিউ’ এর সংখ্যা কমে যাবে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com