মুসলমান ও হিন্দুদের উপাসনার নিয়মের মধ্যে যে সাদৃশ্য রয়েছে

মুসলমানদের পবিত্র কাবা শরীফ
মুসলমানদের পবিত্র কাবা শরীফ পুরোনো ছবি

মুসলমান ও হিন্দু উভয় ধর্মের মানুষ পূণ্য লাভের আশায় উপাসনা করে থাকেন। তবে এই দুই ধর্মের মানুষদের উপাসনা ভিন্ন হলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে রয়েছে সাদৃশ্য।

মুসলমান ও হিন্দুদের উপাসনার নিয়মের মধ্যে কি কি সাদৃশ্য রয়েছে? একজন অমুসলিম নারীর এমন প্রশ্নের উত্তরে ড. জাকির নায়েক বলেন, মুসলমানরাও পবিত্র হজ আদায় করতে গেলে মাথা কামান। অন্যদিকে হিন্দু ধর্মালম্বী মানুষরাও তাদের তীর্থ স্থানে গেলে মাথা কামান। মাথা কামানোর অর্থ হলো বিনয়ী হওয়া যা শুধুমাত্র সৃষ্টিকর্তার জন্য।

এছাড়া মুসলমানরা তাওয়াফে প্রদক্ষিণ করে। অন্যদিকে হিন্দুরাও মন্দিরে প্রদক্ষিণ করে থাকেন। এই প্রসঙ্গে ড. জাকির নায়েক বলেন, হিন্দু ও মুসলিমদের প্রদক্ষিণ করা এক রকম দেখালেও ব্যাপারটা আসলে আলাদা।

হিন্দু ধর্মালম্বীদের মন্দির
হিন্দু ধর্মালম্বীদের মন্দির পুরোনো ছবি

তিনি বলেন, আমরা নামাজের সময় কেবলা দিকে মুখ করি। আর কাবা হলো কেবলা। অর্থাৎ দিক নির্দেশক। সেই কাবার কেউ উত্তরে থাকলে উত্তর দিকে, দক্ষিণে থাকলে দক্ষিণ দিকে, পূর্বে থাকলে পূর্ব দিকে এবং কেউ পশ্চিমে থাকলে পশ্চিম দিকে হয়ে নামাজ আদায় করেন।

জাকির নায়েক আরও বলেন, কাবার চারদিকে প্রদক্ষিণ করা হয় কারণ এ সময় মুসলমানরা সাক্ষ্য দেন যে. আমরা এক আল্লাহকে বিশ্বাস করি। তবে একাধিক দেবতা বা ঈশ্বরকে বিশ্বাস করে কেউ কাবা প্রদক্ণি করলে সেটি ভুল।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com