ভ্রমণের জন্য প্রয়োজনীয় ১৫ টিপস

ভ্রমণের জন্য প্রয়োজনীয় ১৫ টিপস
প্রতীকী ছবি

সারাবছর জুড়েই কেউ কেউ ছোটখাট ট্যুর দিয়ে থাকে, আবার কেউ কেউ বছরে একবার দেয় লম্বা একটা ট্যুর। ঘুরে বেড়ানোর সময়টা হোক ছোট বা বড়, কিছু প্রয়োজনীয় জিনিস জানা থাকা দরকার সবার। এসব টিপস জানা থাকলে দেশে বা দেশের বাইরে ট্যুরে আপনি থাকতে পারবেন অনেকটাই চিন্তামুক্ত।

চলুন, ভ্রমণের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ১৫টি টিপস জেনে নিই-

১.ফ্লেক্সিবল থাকুন। ভ্রমণের ক্ষেত্রে সব কিছুই যে প্ল্যানমতো হবে এমন কোন কথা নেই। প্ল্যানের বাইরে কোন সমস্যার সম্মুখীন হলে প্যানিক না করে শান্ত ভাবে সমস্যার সমাধান করুন।

২.কী কী করতে চান, তার একটা লিস্ট বেড়াতে যাওয়ার আগেই বানিয়ে ফেলুন। এতে করে ভুলে যাওয়ার সম্ভাবনা কম থাকবে।

৩.দেশের বাইরে কোথাও গেলে সেই দেশের বা অঞ্চলের কিছু স্থানীয় ভাষা শিখে নিন। যেমন অন্য কোন দেশ, বিশেষত সেই দেশের ভাষা যদি ইংরেজি না হয়, তবে স্থানীয়রা কীভাবে ‘প্লিজ’, ‘হ্যালো’, ‘থ্যাংক ইউ’ বলছে বা কীভাবে কোন কিছুর দাম জিজ্ঞাস করছে তা জেনে নিন। এতে চলাফেরা করতে সুবিধা হবে।

৪.জিনিসপত্র প্যাক করার সময় ক্যামেরার জন্য এক্সট্রা ব্যাটারি, ফোন চার্জের জন্য পাওয়ার ব্যাংক আর একটা এক্সট্রা চার্জিং ক্যাবল নিতে ভুলবেন না।

৫.ঘুরতে যাওয়ার আগে ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স করানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ, এই ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স কোন কোন ক্ষেত্রে খুবই উপকারী হিসেবে প্রমাণিত।

৬.প্যাকিং এর সময় যে বিষয়ে একটু বেশি খেয়াল রাখা উচিৎ তা হলো এক জোড়া এক্সট্রা আন্ডারওয়্যার এবং এক্সট্রা মোজা নেওয়া।

৭.যেই ব্যাগটি সব সময় আপনার সঙ্গে থাকবে, সেখানে ইলেকট্রনিক ডিভাইস, টুথব্রাশ আর একজোড়া আন্ডারওয়্যার রাখুন। কোন কারণে যদি ট্রানজিটের সময় ব্যাগ হারিয়ে যায়, এগুলো কাজে লাগবে।

৮.হোটেলের ঠিকানা আর রুম নম্বর ফোনের নোট অ্যাপে টুকে রাখুন, এতে ঠিকানা ভুলে গেলে, মনে করার অযাচিত বিড়ম্বনা কমবে।

৯.স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলুন। কোথায় কোন হোটেল ভালো এবং সস্তা, কোন রেস্তোরার খাবার ভালো, কীভাবে সঠিক জায়গায় পৌঁছাতে পারবেন এসব বিষয় স্থানীয়দের থেকে কেউ ভালো বলতে পারবে না।

১০.স্থানীয়দের কালচার এবং রিচুয়ালকে সম্মান করুন। হুটহাট তাদের কাজ বা পোশাক নিয়ে মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকুন।

১১.কিছু টাকা আলাদা করে রাখুন। সব টাকা এবং ক্রেডিট কার্ড একসঙ্গে নিয়ে ঘুরবেন না।

১২.ট্যুর প্ল্যান করার সময় লাগেজে খুব ছোট হলেও একটা ফার্স্ট এইড কিট রাখুন, হঠাৎ বিপদে কাজে লেগে যেতে পারে।

১৩.আগেভাগেই রুম বুক করে রাখুন। অনেক সময় আগে রুম বুক করার ফলে ভালো মানের রুম বেশ সস্তায় পেয়ে যেতে পারেন। রুম বুক করা না থাকলে, হঠাৎ ভিনদেশে পড়তে হতে পারে বিড়ম্বনায়।

১৪.স্থানীয়দের ছবি তোলার আগে তাদের অনুমতি চান, হুটহাট ছবি তুলে ফেলাটা অনেক সময় সমস্যা ডেকে আনতে পারে।

১৫.যেহেতু এখন পৃথিবী করোনা নামক এক মহামারীর ভেতর দিয়ে যাচ্ছে, তাই অবশ্যই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন এবং মাস্ক পরে চলাফেরা করুন।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com