ভ্রমণের আগে অবশ্য করণীয় ৫ কাজ

ভ্রমণের আগে অবশ্য করণীয় ৫ কাজ
প্রতীকী ছবি

ঘুরে বেড়াতে আমরা সবাই পছন্দ করি। বছরের কোন একটি নির্দিষ্ট সময়ে সবাই নিজের পছন্দের স্থানে ঘুরতে যেতে চায়। বছরজুড়ে দেশের বাইরে ট্যুর প্ল্যান করা হলেও একদম শেষ মুহূর্তের ভুলে অনেক কিছুই হতে পারে পণ্ড। তাই ট্যুরে যাওয়ার আগের দুই-তিনদিন অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

ট্যুরে যাওয়ার আগে বেশ কিছু কাজ আছে, যা কখনও ভুলে গেলে চলবে না। কী সেই কাজগুলো, চলুন জেনে নিই।

টুরিস্ট ভিসা এবং ভ্যাকেশনের জন্য ভিন্ন ডকুমেন্টস ট্যুরের আগে চেক করতে হবে।
টুরিস্ট ভিসা এবং ভ্যাকেশনের জন্য ভিন্ন ডকুমেন্টস ট্যুরের আগে চেক করতে হবে।সংগৃহীত ছবি

ভিসা এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

প্রত্যেক দেশেরই আলাদা টুরিস্ট ভিসা এবং ভ্যাকেশনের জন্য ভিন্ন ডকুমেন্টস থাকে। সেসব ঠিক আছে কিনা, কোন দরকারি কাগজ বাদ পড়লো কি না, এসব অবশ্যই যাচাই করে নিতে হবে যাতে শেষ মূহুর্তে কোন সমস্যা না হয়।

ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স

ঘুরতে যাওয়ার আগে ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স করিয়ে নেওয়া খুবই জরুরি। কোন ব্যক্তিগত জিনিস হারিয়ে গেলে, ফোন বা অন্য কোন ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস চুরি বা ছিনতাই হয়ে গেলে, ট্রিপ ক্যানসেল হয়ে যাওয়া বা মেডিকেল কোন ইমার্জেন্সির ক্ষেত্রে এই ইন্স্যুরেন্স কাজে আসবে।

ঘুরতে যাওয়ার আগে ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স করিয়ে নেওয়া খুবই জরুরী।
ঘুরতে যাওয়ার আগে ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স করিয়ে নেওয়া খুবই জরুরী।সংগৃহীত ছবি

গুরুত্বপূর্ণ কাগজের অতিরিক্ত কপি

ট্রাভেলের ক্ষেত্রে যেসব কাগজ গুরুত্বপূর্ণ, তার কয়েকটা করে অতিরক্ত কপি করে রাখা উচিৎ। কোন সমস্যায় পড়ে যদি মেইন কপি হারিয়ে যায় বা কোনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তখন এই এক্সট্রা কপিগুলো কাজে আসবে। তাই পাসপোর্ট, ভিসা, ট্রাভেল ইন্স্যুরেন্স, ড্রাইভিং লাইসেন্স, এয়ার টিকিট এবং ভ্যকসিনের কাগজের কয়েকটা করে এক্সট্রা কপি রাখাটা বুদ্ধিমানের কাজ।

হোটেলে রুম বুক

অনেকেই নির্দিষ্ট জায়গায় পৌঁছে দেখেশুনে হোটেলে রুম বুক করতে পছন্দ করেন। সব সময় সেটা বুদ্ধিমানের মতো কাজ নাও হতে পারে। উৎসবের সময়গুলোতে বা যেসব টুরিস্ট এলাকাগুলো বিখ্যাত, সেখানে সব সময় রুম নাও পাওয়া যেতে পারে, আবার পাওয়া গেলেও সেগুলো হয় নিম্নমানের। তাই আগে থেকেই রুম বুক করে রাখাটা অনেকভাবেই সুবিধার।

আগেভাগে হোটেলে রুম বুক করে রাখলে অনবেক ঝামেলা থেকে নিস্তার পাওয়া যাবে।
আগেভাগে হোটেলে রুম বুক করে রাখলে অনবেক ঝামেলা থেকে নিস্তার পাওয়া যাবে।সংগৃহীত ছবি

প্রয়োজনীয় জিনিস হাতের কাছে রাখা

উপরে উল্লেখিত কাজগুলো ছাড়াও আরও একটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হচ্ছে, আপনি সব সময় যে হ্যান্ডব্যাগ বা যে ব্যাকপ্যাকটি বহন করবেন তা সঠিকভাবে গুছিয়ে নেওয়া। হেডফোন, ফোনের চার্জার, ফোন চার্জের জন্য পাওয়ার ব্যাংক, মোশন সিকনেস বা সি সিকনেস এক জন্য প্রয়োজনীয় ওষুধ, হ্যান্ড হ্যানিটাইজার, ফিলটারসহ একটি পানির বোতল যেন অবশ্যই থাকে ব্যাগে, তা নিশ্চিত করুন। নিরাপদে ভ্রমণ করুন।

সবকিছু গুচিয়ে না নিলে প্রয়োজনের সময় দেখা যাবে অনেক কিছুই আনা হয়নি।
সবকিছু গুচিয়ে না নিলে প্রয়োজনের সময় দেখা যাবে অনেক কিছুই আনা হয়নি।সংগৃহীত ছবি

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com