সঙ্গীর কাছ থেকে গোপনে মেয়েরা যেসব কাজ আশা করে

প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

একটা সম্পর্ককে সুন্দরভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া খুব সামান্য কোন বিষয় নয়। সম্পর্ককে এগিয়ে নিয়ে যেতে দুইজন মানুষেরই সমান অবদান থাকা প্রয়োজন। সম্পরকে আবদ্ধ একজন পুরুষ যেমন তার সঙ্গীর কাছ থেকে সহযোগিতা আশা করে, একজন নারীও তেমনই তার ভালোবাসার মানুষের কাছ থেকে ভালোবাসা, সম্মান কামনা করে। এছড়াও এমন কিছু বিষয় রয়েছে, যা আদতে খুব ছোট মনে হলেও, একজন নারীর কাছে তা বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

প্রত্যেক নারীই তার জীবনে একজন আদর্শ পুরুষ চায়, যে তাকে ভালোবাসবে, সম্মান করবে, তাকে সামনের দিকে এদিয়ে যেতে উৎসাহ প্রদান করবে। এক্ষেত্রে একজন পুরুষ সঙ্গী বেশ কিছু পদক্ষেপ নিতে পারে, যা তার ভালোবাসার মানুষটিকে তার প্রতি আরও আকৃষ্ট করে তুলবে। চলুন জেনে নিই সেই গোপন বিষয়গুলো, যা একজন নারী তার ভালোবাসার মানুষের কাছ থেকে আশা করে।

১. কাজের প্রশংসা: একজন নারী সেই পুরুষকেই পছন্দ করে, যে তার কাজের প্রশংসা করে। হোক সেই কাজ খুব ছোট কিছু, যেমন প্রিয় মানুষের জন্য রান্না করা। তারা চায়, ভালোবাসার মানুষটি তার কাজকে উৎসাহ প্রদান করুক। তাই তার ছোট ছোট কাজগুলোর প্রশংসা করুন।

২. সুরক্ষার আশ্বাস: প্রতিটা মেয়েই চায় ভালোবাসার মানুষের কাছে সুরক্ষিত থাকতে, তবে তা শুধুমাত্র শারীরিক ভাবে নয়। একজন নারী অবশ্যই চাইবে তার ভালোবাসার মানুষটি তাকে সকল বিপদ থেকে রক্ষা করবে, তবে সেইসঙ্গে তারা মানসিক নিরাপত্তাও চায়। তারা চায় পছন্দের মানুষটি যেন তার মানসিকতাকেও বোঝে এবং সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ নেয়।

৩. সময়: মেয়েরা তার ভালোবাসার মানুষটির কাছে সবচেয়ে বেশি যেটা চায় তা হলো তার সময়। ভালোবাসার মানুষটি যদি সবসময় অফিসের কাজে বা ফোনে কথা বলতে ব্যস্ত থাকে, তবে সম্পর্কে আসতে পারে তিক্ত অনুভূতি। একজন নারী তার পার্টনারের কাছ থেকে বিশ্বস্ততা, নিরাপত্তা এবং ভালো-খারাপ সব সময়গুলোতে তার উপস্থিতি কামনা করে।

৪. মন ভাল রাখা: নারী সঙ্গীর মন খারাপে তাকে উৎফুল্ল করার চেষ্টা করুন। কোন কারণে হয়তো তার মন খারাপ, হয়তো অফিসের কাজের চাপে সে বিপর্যস্ত, চেষ্টা করুন তাকে নানা কথায় ব্যস্ত রাখতে বা তার কোন পছন্দের যায়গায় ঘুরতে নিয়ে যেতে। যদি কোথাও যাওয়া সম্ভব নাও হয়, চেষ্টা করুন দুজনে একান্তে কিছু সময় কাটাতে, ভালোবাসা বাড়বে বই কমবে না।

৫. সঙ্গীকে ‘প্যাম্পার’ করা: একজন নারী মাত্রই সঙ্গীর ‘প্যাম্পার’ বা ‘যত্ন’ পছন্দ করবে। তাকে নিয়ে ঘুরতে যাওয়া, শপিং-এ যাওয়া বা তার পছন্দের রেস্তরাঁয় ডিনার- যে কোনকিছুতেই সে খুশি হবে। আবার যদি চান, বাসায় বসেই তাকে অবাক করে দিতে পারেন তার পছন্দের কোন খাবার রান্না করে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com