ঘুম বাড়ায় যে ৫ খাবার

ঘুম বাড়ায় যে ৫ খাবার
প্রতীকী ছবি

ঘুম মানুষের জীবনে একটি অপরিহার্য অংশ। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে সারাটা দিন এবং দিনের অধিকাংশ কাজই ঠিকভাবে করা যায় না। অনেকেই আছেন যারা রাতে বা দিনে যে কোন সময়েই বালিশে মাথা রাখলেই ঘুমিয়ে যেতে পারেন। আবার অনেকে হয়তো ঘণ্টার পর ঘণ্টা চেষ্টা করেও ঘুমাতে পারে না।

পর্যপ্ত ঘুমের জন্য ঘুম এবং খাবারের মধ্যে সামাঞ্জস্যতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কিছু কিছু খাবার এবং পানীয় আছে, যা আমাদের ঘুম কমিয়ে দেয়। ঠিক একইভাবে, কিছু খাবার এবং পানীয় শরীরকে ক্লান্ত করে আমাদের ঘুমিয়ে যেতে সাহায্য করে। আজ আমরা জানবো এমন কিছু খাবার এবং পানীয় সম্পর্কে যা আমাদের ঘুম বৃদ্ধিতে সহায়ক।

কাজু বাদাম

আমন্ড বা কাজু বাদামে আছে প্রচুর পরিমাণ ম্যাগনেসিয়াম, যা অনিদ্রা বা ইনসোমনিয়ার রোগীদের চিকিৎসায় সহায়তা করে। কাজু মেলাটোনিন নামে এক ধরনের হরমোনের উৎস, যা শরীরের অভ্যন্তরীণ ক্রিয়াকলাপকে ঘুমের জন্য প্রস্তুত করে।

কাজু মেলাটোনিন নামে এক ধরনের হরমোনের উৎস, যা শরীরের অভ্যন্তরীণ ক্রিয়াকলাপকে ঘুমের জন্য প্রস্তুত করে
কাজু মেলাটোনিন নামে এক ধরনের হরমোনের উৎস, যা শরীরের অভ্যন্তরীণ ক্রিয়াকলাপকে ঘুমের জন্য প্রস্তুত করেসংগৃহীত ছবি
দুধে থাকা ক্যালসিয়াম ক্লান্তি দূর করে ব্রেইনকে স্থিতিশীল করতে সহায়তা করে
দুধে থাকা ক্যালসিয়াম ক্লান্তি দূর করে ব্রেইনকে স্থিতিশীল করতে সহায়তা করেসংগৃহীত ছবি

গরম দুধ

আদিকাল থেকে যে মায়েরা ঘুমের আগে সন্তানকে এক গ্লাস দুধ খেতে দেয়, তার পেছনে রয়েছে একটি বড় কারণ। রাতে এক গ্লাস দুধ ঘুমাতে সহায়তা করে, কারণ এতে রয়েছে অ্যামিনো এসিড, যা আমাদের ব্রেইনে সেরোটোনিন উৎপাদনে সহায়তা করে। এর ফলে ঘুম আসে। এছড়া দুধে থাকা ক্যালসিয়াম ক্লান্তি দূর করে ব্রেইনকে স্থিতিশীল করতে সহায়তা করে।

সাদা ভাত

সাদা ভাত ঘুম বৃদ্ধিতে সহায়ক। সাদা ভাত রক্তে ট্রাইটোফান এবং সেরোটোনিনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়, যার কারণে দ্রুত ঘুম আসে।

ওটমিল ঘুম বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে
ওটমিল ঘুম বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেসংগৃহীত ছবি

ওটমিল

অনেকেই দিনের শুরুটা শুরু করে ওটমিল দিয়ে। তবে মজার কথা হচ্ছে, ওটমিল ঘুম বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। ওটমিলে যেসব শস্যদানা থাকে, তা রক্তে ইনিসুলিনের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়, রক্তে চিনির পরিমাণও বাড়ে। ওটমিল মেলাটোনিন সমৃদ্ধ খাবার হওয়ায় তা শরীরকে একটি সুদিং অনুভূতি প্রদান করে এবং ঘুম বৃদ্ধি করে।

কলা

কলায় আছে পটাসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়াম যা আমাদের নার্ভকে শান্ত করতে সহায়তা করে। কলায় আরও আছে ভিটামিন বি৬, যা রক্তে থাকা ট্রাইটোফানকে সেরোটনিনে রুপান্তর করে, যা আমাদের শরীরকে আরও রিল্যাক্স করে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com