দোনেৎস্ক ও লুহানস্ক অন্তর্ভুক্ত করতে গণভোট করবে রাশিয়া

ইউক্রেনে মোতায়েনকৃত রুশ সেনাসদস্য।
ইউক্রেনে মোতায়েনকৃত রুশ সেনাসদস্য।পুরোনো ছবি

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের সাত মাস পর মস্কো নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলগুলোতে গণভোটের আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাশিয়া। রুশ সামরিক বাহিনী অধ্যুষিত অঞ্চলগুলোর রাশিয়ায় অন্তর্ভুক্তির ব্যাপারে এ গণভোট আয়োজন করা হবে। সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা, রয়টার্স ও বিবিসির প্রতিবেদেন এমনটা জানা যায়।  

সম্প্রতি ইউক্রেনের উত্তরপূর্ব অঞ্চলে রুশ সামরিক অভিযান অনেকটাই স্তিমিত হয়ে এসেছে। ইউক্রেনে সেনাবাহিনী অগ্রসর হওয়ার কারণে এসব অঞ্চলে উল্লেখযোগ্য ভূমি হারিয়েছে রুশ সেনারা। এরপরই পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলের ব্যাপারে এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে রুশ প্রশাসন।

ইউক্রেনে মোতায়েনকৃত রুশ সেনাসদস্য।
অস্ত্র হাতে তুলে নিচ্ছে ইউক্রেনের হাজারো তরুণী

রাশিয়ান সিকিউরিটি কাউন্সিলের ডেপুটি হেড দেমিত্রি মেদভেদেভ বলেন, মঙ্গলবার দোনেৎস্ক ও লুহানস্কের পূর্বাঞ্চলে ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর ফলে একটি ঐতিহাসিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হবে যা অপরিবর্তনীয়। সংবিধানে এ সংক্রান্ত সংশোধনী আনার পর রাশিয়ার কোনো ভবিষ্যৎ নেতা এটিকে পরিবর্তন করার ক্ষমতা রাখবেন না।   

ইউক্রেনে মোতায়েনকৃত রুশ সেনাসদস্য।
পারমাণবিক ও রাসায়নিক অস্ত্র না ব্যবহারের আহ্বান বাইডেনের

মস্কোর এমন ঘোষণার পরপরই অঞ্চল দুটির রাশিয়া সমর্থিত প্রশাসন জানায়, ২৩-২৭ সেপ্টেম্বর দোনেৎস্ক ও লুহানস্কে গণভোট অনুষ্ঠিত হবে। ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরুর তিন দিন আগে এ অঞ্চলগুলোকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করে ভ্লাদিমির পুতিন।

ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলে অবস্থিত খেরসানের প্রশাসন জানায়, তারাও এ সংক্রান্ত গণভোট আয়োজনের প্রস্তুতি গ্রহণ করছে। একই ধরনের সিদ্ধান্ত এসেছে রুশ অধিকৃত জাপোরিজ্জিয়াতেও।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com