তুমব্রু সীমান্তে থেমে থেমে চলছে প্রচণ্ড গোলাগুলি, পরিদর্শনে ডিসি-এসপি

ঘুমধুম সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে বান্দরবান জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার
ঘুমধুম সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে বান্দরবান জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারছবি: সংগৃহীত

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার তুমব্রু পশ্চিমকুল গ্রাম সংলগ্ন সীমান্তের ওপারে থেমে থেমে চলছে আর্টিলারি ও মর্টার শেলের গোলাবর্ষণ। সীমান্তে অবস্থিত মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) চৌকি থেকে ছোড়া হচ্ছে মুহুর্মুহু গুলি। সীমান্ত চৌকির পাশেই রয়েছে বিজিপির ঘাঁটি, মূলত এ ঘাঁটিকে ঘিরেই চলছে এসব গুলি ও শেল বর্ষণ।

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে বিদ্রোহী গোষ্ঠীর সঙ্গে দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর চলমান সংঘাতের জেরে অব্যাহত গোলাবর্ষণে কাঁপছে তুমব্রু পশ্চিমকুল, ক্যাম্পপাড়া, বাজার পাড়াসহ আশপাশের ১০টির বেশি গ্রাম। গতকাল থেকে শুরু হয়ে গোলাগুলি চলছে এখনো।

ঘুমধুম সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে বান্দরবান জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার
তুমব্রু সীমান্তে আবারও গোলাগুলির শব্দ

স্থানীয়রা জানান, গতকাল সকাল থেকে ভোররাত পর্যন্ত গোলাগুলি চলে। তারপর কয়েক ঘণ্টা বিরতি দিয়ে আজ ভোর থেকে আবারও থেমে থেমে চলছে গোলাগলি। এ সময় ছোড়া হচ্ছে বেশ কয়েকটি মর্টার শেলও। গোলাগুলি ও মর্টার হামলার বিকট শব্দে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন গ্রামগুলোর বাসিন্দারা।

পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে গেছেন বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি ও পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম। এর আগে আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সীমান্তবর্তী কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি কেন্দ্র পরিদর্শনে যান বান্দরবান জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন ও পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম।

ঘুমধুম সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে বান্দরবান জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার
মিয়ানমার সীমান্তে এখনই সেনা মোতায়েন নয় : ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্র সচিব

নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের ৪৩৩ জন এসএসসি পরীক্ষার্থীকে সীমান্ত পরিস্থিতির কারণে এই কেন্দ্রে সরিয়ে আনা হয়েছে। গত শনিবার থেকে ঘুমধুম কেন্দ্রের পরীক্ষার্থীরা উখিয়ায় তাদের এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে।  

নিরাপত্তা বাহিনীর সূত্রে জানা যায়, ঘুমধুম সীমান্তবর্তী উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে বেশ কয়েকটি পরিবারকে সরিয়ে আনার প্রস্তুতি চলছে।

ঘুমধুম সীমান্ত এলাকা পরিদর্শনে বান্দরবান জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার
সীমান্তে গোলাগুলি, ঘুমধুম থেকে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র স্থানান্তর

মিয়ানমারে চলমান অস্থিতিশীল পরিস্থিতির কারণে গত দুই মাস ধরে সীমান্তবর্তী গ্রামের মানুষ স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারছে না বলে মন্তব্য করেছেন ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে জাহাঙ্গীর আজিজ। এ সময় এসব এলাকায় চাষাবাদসহ দৈনন্দিন জীবনযাপন অনেকটা কঠিন হয়ে পড়েছে বলেও জানান তিনি।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com