বাড়ির ছাদে লেটুস ফলাচ্ছেন সিরিয়ান অভিবাসীরা (ভিডিও)

মিসরের কায়রোয় বাড়ির ছাদে লেটুস চাষ করছেন কিছু সিরিয়ান অভিবাসী।
মিসরের কায়রোয় বাড়ির ছাদে লেটুস চাষ করছেন কিছু সিরিয়ান অভিবাসী।ছবি : রয়টার্স

প্রথম দেখায় মনে হতে পারে কোনো ফসলি জমি, যার বুকজুড়ে ছড়িয়ে আছে বিস্তীর্ণ সবুজ। কিন্তু আদতে এটি একটি ভবনের ছাদ, যার অব্যবহৃত অংশে হচ্ছে লেটুস চাষ।

সিরিয়া থেকে মিসরে পাড়ি জমানো কিছু অভিবাসীকে এ কাজে সহায়তা করছে স্থানীয় স্মার্ট ফার্মিং কোম্পানি শাদৌফ। অর্থায়নে রয়েছে জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থা-আইওএম।

শাদৌফের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেরিফ হোসনি বলেন, ‘আইওএমের সঙ্গে আমাদের একটি প্রকল্প চলছে। এর অধীনে যেসব অভিবাসী কাজ পাচ্ছেন না, তাদের জন্য বিভিন্ন বাড়ির ছাদে চাষাবাদের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এখানে উৎপন্ন ফসলগুলো বিক্রি করা হয় কায়রোর সুপারমার্কেটে। যার অর্থ তুলে দেওয়া হয় অভিবাসীদের হাতে।

ছাদে লেটুস চাষে স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি সবুজায়নেও অবদানের সুযোগ পাচ্ছেন অভিবাসীরা। শুধু তাই নয়, যুদ্ধ ও ভয়াবহতা থেকে পালিয়ে আসা এসব মানুষ কাজের মধ্য দিয়ে ভোলার সুযোগ পান অতীতের দুঃখ-গ্লানি।

মিসরের কায়রোয় বাড়ির ছাদে লেটুস চাষ করছেন কিছু সিরিয়ান অভিবাসী।
কেরালায় মেসি-নেইমার!

সিরিয়ান অভিবাসী আহমেদ খাত্তাব শেহতা বলেন, ‘লেটুসের বীজ বপন থেকে শুরু করে পরিণত হওয়ার প্রতিটি ধাপে আমি যত্নসহকারে কাজ করি। কারণ, এগুলো আমার সন্তানের মতো। যা আমাকে দুঃখ ভোলার ও ধৈর্য ধরার পথ তৈরি করে দিয়েছে।’

অপর এক অভিবাসী লুবনা সাহরি আহমেদ বলেন, ‘মিসরের অধিকাংশ বাড়ির ছাদই অতিরিক্ত মালপত্র রাখতে ব্যবহার করা হয়, যেগুলো দেখতে একদমই ভালো লাগে না। এর পরিবর্তে সমগ্র ছাদে সবজির চাষ হলে তা দেখতে যেমন সুন্দর লাগে, তেমনি উপকারেও আসে।’

শাদৌফ বলছে, মিসরের ১৯টি বাড়ির ছাদে তারা এ ধরনের কৃষি ইউনিট তৈরি করেছেন। এ কাজে শরণার্থীদের পাশাপাশি অনেক মিসরীয় যুক্ত হচ্ছেন। একে খাদ্য নিরাপত্তা ও বাড়তি আয়ের উৎস হিসেবে বিবেচনা করছে কোম্পানিটি।

মিসরের কায়রোয় বাড়ির ছাদে লেটুস চাষ করছেন কিছু সিরিয়ান অভিবাসী।
ছাত্রীকে বিয়ে করতে লিঙ্গ পরিবর্তন শিক্ষিকার

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com