মঙ্গল গ্রহে উড়বে বিমান

যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাকাশ বিশেষজ্ঞরা  মঙ্গল গ্রহের জন্য বিমান তৈরি করছেন।
যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাকাশ বিশেষজ্ঞরা মঙ্গল গ্রহের জন্য বিমান তৈরি করছেন।ছবি : সংগৃহীত

বিশ্বের অনেক মহাকাশ সংস্থা মঙ্গল গ্রহে অরবিটার, ল্যান্ডার, রোভার পাঠিয়েছে। এমনকি নাসা একটি হেলিকপ্টার পাঠিয়েছে। তবে মঙ্গলে বিমান পাঠানোর নজির নেই।

এবার মঙ্গল গ্রহের জন্য বিমান তৈরি করছেন যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহাকাশ বিশেষজ্ঞরা। এ প্রকল্পের সঙ্গে নাসার একজন বিজ্ঞানীও যুক্ত রয়েছেন।

বিজ্ঞানীরা জানান, মঙ্গলের বায়ুমণ্ডল পাতলা বলে সেখানে ভেসে থাকা বেশ কঠিন। এই বিমান বায়ুশক্তি ব্যবহার করে টানা কয়েক দিন মঙ্গলের আকাশে ভাসবে। এ জন্য কোনো জ্বালানির প্রয়োজন হবে না।

নতুন এই উড়োজাহাজকে কাজে লাগিয়ে মঙ্গল গ্রহের বিভিন্ন অজানা তথ্য জানা সম্ভব হবে।
নতুন এই উড়োজাহাজকে কাজে লাগিয়ে মঙ্গল গ্রহের বিভিন্ন অজানা তথ্য জানা সম্ভব হবে।ছবি : সংগৃহীত

এর আগে বেশ কয়েকটি নভোযান মঙ্গল গ্রহ প্রদক্ষিণ করেছে এবং ছবি তুলছে। কিছু রোবটযানও বিভিন্ন এলাকার অনুসন্ধানে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। বায়ুমণ্ডল ও আগ্নেয়গিরির মতো ভূতাত্ত্বিক বৈশিষ্ট্যগুলো মহাকাশ বা ভূপৃষ্ঠে থাকা রোবটযান দিয়ে পর্যবেক্ষণ সম্ভব নয়। তাই এই উড়োজাহাজকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন অজানা তথ্য জানা সম্ভব হবে।

বিবিসির খবরে বলা হয়, অ্যালবাট্রস পাখি যেমন গতিশীল ওড়ার কৌশল ব্যবহার করে, এ বিমানও তা–ই করবে। উচ্চতার সঙ্গে বাতাসের গতির পরিবর্তনের সুবিধা নেবে এটি। জ্বালানি ছাড়াই এ বিমান দীর্ঘ সময় আকাশে ভাসবে।

বিমানটির পাখার দৈর্ঘ্য ১১ ফুট। এরই মধ্যে কম উচ্চতায় বিমানের পরীক্ষা চালিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। আগস্টে ১৫ হাজার ফুট উচ্চতায় উড়োজাহাজটি পরীক্ষা করে দেখা হবে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com