অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে হিজাব পরিহিতা প্রথম সিনেটর ফাতিমা

ফাতিমা পায়মান
ফাতিমা পায়মান

অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে ইতিহাস গড়লেন আফগান তরুণী ফাতিমা পায়মান। ২৭ বছর বয়সে তিনি অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টের সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। শুধু তাই নয়, দেশটির পার্লামেন্টে হিজাব পরিহিতা প্রথম সিনেটর ফাতিমা। বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

নির্বাচিত হওয়ার পর পার্লামেন্টে প্রথম বক্তব্য দিতে গিয়ে ফাতিমা বলেন, ‘কে ভেবেছিল, আফগানিস্তানে জন্ম নেওয়া এক তরুণী ও এক শরণার্থী বাবার মেয়ে আজ এই পার্লামেন্ট কক্ষে দাঁড়িয়ে কথা বলবে।’

নিজের এই অর্জনের জন্য ফাতিমা তার বাবাকে ধন্যবাদ দিয়েছেন। ফাতিমার বাবা অবশ্য আগেই মারা গেছেন। ফাতিমা বিবিসিকে বলেছেন, সিনেটর হিসেবে তার নির্বাচিত হওয়া অস্ট্রেলিয়ার মুসলমানদের জন্য তাৎপর্যপূর্ণ।

একটা সময় আসবে যখন একজন এমপি বা সিনেটরের হিজাব পরার বিষয়টি আর খবরের শিরোনাম হবে না।
ফাতিমা পায়মান, অস্ট্রেলিয়ান সিনেটর

তিনি বলেন, কেউ যদি নিজেকে তার অভীষ্ট লক্ষ্যে না দেখতে পারে, তাহলে তা সে কখনোই হতে পারবে না। কে কোন ধরনের পোশাক পরলেন তাতে কিছুই আসে যায় না ফাতিমা পায়মানের। অন্য সবার মতো তিনিও একজন অস্ট্রেলিয়ান। আর হিজাব তার পছন্দ।

পাঁচ বছর আগে অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর পাউলিনা হেনসন সংসদে বোরকা পরে এসে পরে তা খুলে ফেলে বোরকা নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছিলেন। এ প্রসঙ্গে ফাতিমা পায়মান বিবিসিকে বলেন, ‘এটা সব মুসলমানদের জন্য অসম্মানজনক ছিল। আপনি জানেন, অস্ট্রেলিয়ায় এই মুহূর্তে আমরা সবাই অভিবাসী। এমনকি সিনেটর হেনসন এবং তার পারিবারিক ঐতিহ্য- তারা কোথা থেকে এসেছেন তাও সবার অজানা নয়।’

ফাতিমা জানান, তার প্রয়াত বাবা আফগানিস্তানের মানুষের উন্নতির কথা ভেবে সব সময় ইচ্ছা প্রকাশ করতেন যেন ফাতিমা আফগানিস্তানের পার্লামেন্টে নির্বাচিত হন। তবে তিনি কখনো ভাবেননি যে তার মেয়ে অস্ট্রেলিয়ায় সুযোগ পাবে। ফাতিমার বাবা ২০০৩ সালে শরণার্থী হিসেবে আফগানিস্তান থেকে অস্ট্রেলিয়ায় যান। লিউকোমিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ২০১৮ সালে ৪৭ বছর বয়সে মারা যান তিনি।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com