চাকরির আবেদন করতে মেলাতে হবে সমীকরণ

সমীকরণের উত্তরে লুকিয়ে আছে ফোন নম্বর।
সমীকরণের উত্তরে লুকিয়ে আছে ফোন নম্বর।ছবি : সংগৃহীত

একজন চাকরিপ্রার্থীর জন্য ভালো চাকরি পাওয়া যেমন কঠিন, তেমনি প্রতিষ্ঠানের জন্য একজন দক্ষ কর্মী পাওয়া আরও বেশি কঠিন। দক্ষ কর্মী খুঁজে পেতে অনেক প্রতিষ্ঠান তাই চাকরির বিজ্ঞাপনে বিভিন্ন অভিনব পন্থা নিয়ে হাজির হয়।

ভারতের গুজরাট রাজ্যের ভক্তাশ্রম বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা ঘটিয়েছেন। আবেদনকারীদের জন্য তাদের প্রকাশিত চাকরির বিজ্ঞাপনটিই ‘প্রশ্নপত্র’ হয়ে উঠেছে। প্রথম ধাপ হিসেবে প্রশ্নের সমাধান করতে পারলেই মিলবে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের ফোন নম্বর।

গণিতের শিক্ষক চেয়ে ওই বিজ্ঞাপনটি প্রকাশ করে নবসারি জেলার বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিজ্ঞাপনটির দিকে তাকালেই চোখ আটকে যাবে যে কারও। ঠিকানার পাশাপাশি যোগাযোগের ফোন নম্বরের স্থানে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে বিশাল এক গণিতের সমীকরণ। সমীকরণের উত্তরেই লুকিয়ে আছে ফোন নম্বর। কাজেই আবেদন করতে চাইলে প্রথমে গণিতের সমীকরণটির সমাধান করতে হবে। অংক ঠিক হলেই মিলবে যোগাযোগের সঠিক ফোন নম্বর।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, অভিনব বিজ্ঞাপনটি ইতিমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ সাড়া ফেলেছে। এমনকি ভারতের অন্যতম ধনকুবের, আরপিজি গ্রুপের চেয়ারম্যান হর্ষ গোয়েঙ্কারের নজরও এড়ায়নি। গত শনিবার সকালে ঘুম থেকে উঠেই চোখ ছানাবড়া হয়ে যায় গণিতের সমীকরণ দেখে। চার লাইনের ছোট্ট বিজ্ঞাপনটি নিজের টুইটারে পোস্ট করে হাসির ইমোজি দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘বিজ্ঞাপনটি দেখলাম!’

গোয়েঙ্কার ওই টুইট প্রায় ২০ লাখ ব্যবহারকারী দেখেছেন। লাইক পড়েছে ২২ হাজারেরও বেশি। তবে লাইক আর শেয়ারেই সীমাবদ্ধ থাকেননি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা। গণিতের শিক্ষক নেওয়ার এই কৌশলে অভিভূত হয়ে কয়েকজন রীতিমতো সমীকরণটি সমাধানও করে ফেলেছেন।

টুইটের নিচে মন্তব্যের ঘরে ক্রিথিকা নামে একজন লিখেছেন, ‘সমীকরণ দেখে নিজেকে সামলাতে পারলাম না। সমীকরণের উত্তরটি হচ্ছে ৯৪২৮১৬৩৮১১; এটিই ওই বিদ্যালয়ের দেওয়া ১০ সংখ্যার মুঠোফোন নম্বর।

আরেকজন মজা করে আরেকটি সমীকরণ দিয়ে লিখেছেন, ‘দুঃখিত আমি আবেদন করতে পারছি না। কারণ আমি গুজরাট থেকে অনেক দূরে থাকি। কত কিলোমিটার দূরে থাকি সেটি বের করতে হলে মেলাতে হবে এই সমীকরণ।’

তবে যে যাই বলুক, বিদ্যালয়ের ওই বুদ্ধিমান নিয়োগদাতা সময় বাঁচানোর পাশাপাশি একজন দক্ষ গণিতের শিক্ষক পেতে যাচ্ছেন সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com