ইরানে মাহসা আমিনির মৃত্যু, স্কার্ফ জ্বালিয়ে নারীদের প্রতিবাদ

মাহসা আমিনির মৃত্যুতে ইরানে চলমান বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে আরও কয়েকটি শহরে।
মাহসা আমিনির মৃত্যুতে ইরানে চলমান বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে আরও কয়েকটি শহরে।ছবি : সংগৃহীত

ইরানে মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনায় টানা পঞ্চম দিনে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ রাজধানী তেহরানসহ আরও কয়েকটি শহরে ছড়িয়ে পড়েছে। ‘সঠিক নিয়মে’ হিজাব না পরার অভিযোগে আটকের পর পুলিশের হেফাজতে মাহসা আমিনির মৃত্যুর প্রতিবাদে স্কার্ফ জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানান বিক্ষোভে অংশ নেওয়া নারীরা।

কুর্দি নারী মাহসা আমিনিকে গত ১৩ সেপ্টেম্বর তেহরানের পুলিশ গ্রেপ্তার করে।  পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার দুই ঘণ্টা পরে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তিন দিন কোমায় থাকার পর গত শুক্রবার মারা যান ২২ বছর বয়সী আমিনি।

তবে পুলিশ এ ঘটনা অস্বীকার করেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন তিনি।

মাহসা আমিনি
মাহসা আমিনিছবি : সংগৃহীত

ইরানের দক্ষিণাঞ্চল থেকে তেহরানে ঘুরতে আসা মাহসাকে একটি মেট্রোস্টেশন থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি সঠিকভাবে হিজাব পরেননি। এমনকি তার শরীরের অন্যান্য অংশে ভালোভাবে ঢেকে তিনি পোশাক পরেননি।

জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার নাদা আল-নাশিফ জানান, পুলিশ আমিনির মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করলে তার মাথা গাড়ির সঙ্গে ধাক্কা লেগে ফেটে যায় বলে জানা গেছে।

নারীর পোশাকের স্বাধীনতার দাবিতে চলমান বিক্ষোভে নারীদের পাশাপাশি পুরুষরাও যোগ দিয়েছেন। বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত নিহত হয়েছেন কমপক্ষে পাঁচজন।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com