লেবাননে ব্যাংক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত

লেবাননের ব্যাংকগুলো অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা দেশটির ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশনের।
লেবাননের ব্যাংকগুলো অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা দেশটির ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশনের।ছবি : সংগৃহীত

নিরাপত্তা না থাকায় লেবাননের ব্যাংকগুলো অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে দেশটির ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন।

গত সপ্তাহে লেবাননে বেশ কয়েকটি ব্যাংকে কয়েকজন গ্রাহক আটকে থাকা সঞ্চয়ের অর্থ তোলার জন্য নানাভাবে ঘেরাও করেছেন। সেই প্রেক্ষাপটে লেবাননে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

লেবাননের ব্যাংকগুলো অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা দেশটির ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশনের।
দক্ষিণ এশিয়ায় মুসলিম পরিবারে মা-বাবার চেয়ে বেশি ধার্মিক সন্তান : জরিপ

ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন বলছে, তাদের কর্মীরা ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। ঝুঁকি কমাতে সরকার কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

গত সপ্তাহে তিন দিন ব্যাংক বন্ধ থাকার পর আজ বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাংক খোলার কথা ছিল। গত সপ্তাহে এক নারী খেলনার পিস্তল নিয়ে একটি ব্যাংকের ভেতরে গিয়ে অবস্থান নেন। সেখানে গিয়ে তিনি ব্যাংকে গচ্ছিত তার সঞ্চয়ের অর্থ তুলতে চান।

কারণ, তার পরিবারের একজন সদস্য হাসপাতালে ছিলেন এবং তিনি হাসপাতালের বিল পরিশোধ করতে পারছিলেন না। সঞ্চয়ের টাকা তোলার জন্য এ ধরনের ঘটনা আরও রয়েছে। গত শুক্রবার এক দিনেই এ ধরনের পাঁচটি ঘটনা ঘটেছে।

লেবানন চরম আর্থিক সংকটের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে। দেশটির ৮০ শতাংশ মানুষ খাদ্য ও ওষুধ কেনার জন্য সংগ্রাম করছে। মানুষ তদের সঞ্চয়ের অর্থ ফেরত পাওয়ার জন্য যেভাবে ব্যাংকের ভেতরে গিয়ে অবস্থান নিয়েছে, সেটি সমর্থন করছে সাধারণ মানুষ।

লেবাননের ব্যাংকগুলো অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ রাখার ঘোষণা দেশটির ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশনের।
২০১৮ সালে লেবানন ভ্রমণের পর বদলে যান হাদি মাতার, জানালেন মা

সমস্যার সূত্রপাত

দেশটিতে ২০১৯ সাল থেকে ব্যাংকগুলো ডলার উত্তোলনের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে। তখন থেকেই লেবাননের মুদ্রা পাউন্ডের ব্যাপক দরপতন হয় এবং জিনিসপত্রের দাম ব্যাপক বেড়ে যায়।

লেবানন চরম আর্থিক সংকটের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে।
লেবানন চরম আর্থিক সংকটের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে।ছবি : সংগৃহীত

আগস্টে এক ব্যক্তি অস্ত্র নিয়ে একটি ব্যাংকের ভেতরে অবস্থান নেন এবং তার সঞ্চয়ের টাকা দাবি করেন। এক পর্যায়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সেটি দিতে বাধ্য হয় এবং তিনি নিজের সঞ্চয়ের ৩৫ হাজার পাউন্ড নিয়ে বেরিয়ে আসেন।

সেই ঘটনা অনেকের দৃষ্টি যেমন আকর্ষণ করেছে, তেমনি জনসমর্থনও পেয়েছে। তার নামে কোনো মামলা করা হয়নি।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com