দেশে ফিরতে পারেন গোতাবায়া রাজাপাকসে

শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে
শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে

গণবিক্ষোভের মুখে বিদেশে পালানো শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে দেশে ফিরতে পারেন বলে আশা করা হচ্ছে। দেশটির একজন আইনপ্রণেতার বরাতে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

লংকান মন্ত্রিসভার মুখপাত্র বান্দুলা গুনাবর্ধনে মঙ্গলবার রয়টার্সকে বলেছেন, গোতাবায়া রাজাপাকসে আত্মগোপনে যাননি, তবে তিনি কবে দেশে ফিরবেন সেটি এখনো বলা যাচ্ছে না।

গণবিক্ষোভের মুখে গত ১৪ জুলাই দেশ ছেড়ে পালিয়ে মালদ্বীপ হয়ে সিঙ্গাপুরে যান প্রেসিডেন্ট গোতাবায় রাজাপাকসে। তার সঙ্গে যান স্ত্রী ও দুই দেহরক্ষী। সেখানে তাকে ১৪ দিন অবস্থানের অনুমতি দেওয়া হয়।

ব্যাপক অর্থনৈতিক সংকট দেখা দেওয়ায় অস্থিতিশীলতা বিরাজ করছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে। জ্বালানি, বিদ্যুৎ, চিকিৎসাসহ নানা সংকট থেকে উত্তরণের দাবিতে জনগণ রাস্তায় নেমে এসেছে। বিক্ষোভকারীরা শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট ভবন, প্রধানমন্ত্রীর ভবনে অবস্থান নেন। গণবিক্ষোভের মুখে গত ১৪ জুলাই দেশ ছেড়ে পালিয়ে মালদ্বীপ হয়ে সিঙ্গাপুরে যান প্রেসিডেন্ট গোতাবায় রাজাপাকসে। তার সঙ্গে যান স্ত্রী ও দুই দেহরক্ষী। সেখানে তাকে ১৪ দিন অবস্থানের অনুমতি দেওয়া হয়।

সম্প্রতি একটি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা গোতাবায়া রাজাপাকসের নামে সিঙ্গাপুরে মামলা করেছে। শ্রীলঙ্কায় কয়েক দশকের গৃহযুদ্ধে ‘বিতর্কিত’ ভূমিকার জন্য তাকে গ্রেপ্তারের আবেদন জানিয়েছে বাদীপক্ষ।

ইন্টারন্যাশনাল ট্রুথ অ্যান্ড জাস্টিজ প্রজেক্ট জানায়, গোতাবায়া রাজাপাকসে ২০০৯ সালে দেশের প্রতিরক্ষা প্রধান থাকার সময় গৃহযুদ্ধে জেনেভা কনভেনশনের ভয়াবহ লঙ্ঘন ঘটিয়েছিলেন।

সিঙ্গাপুরে যাওয়ার পর সেখান থেকে পদত্যাগপত্র পাঠান গোতাবায়া রাজাপাকসে। গত ১৫ জুলাই শ্রীলঙ্কার মন্ত্রিসভা তার পদত্যাগপত্র আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com