উত্তর কোরিয়াকে বার্তা দিতে দক্ষিণ কোরিয়ায় মার্কিন বিমানবাহী রণতরী

বুসান নৌ ঘাঁটিতে মার্কিন বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যান
বুসান নৌ ঘাঁটিতে মার্কিন বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যানছবি: সংগৃহীত

ইউক্রেন ও তাইওয়ানের পর এবার দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতি নিজেদের সামরিক সমর্থনের বার্তা জানাল যুক্তরাষ্ট্র। আজ শুক্রবার দক্ষিণ কোরিয়ার বন্দরে পৌঁছে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যান। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এমনটা জানা যায়।

উত্তর কোরিয়ার প্রতি একটি পরিষ্কার বার্তা দিতেই এ আয়োজন বলে জানায় যুক্তরাষ্ট্র। এ সময় বিমানবাহী রণতরীর বহরে থাকা অন্যান্য রণতরীও দক্ষিণ কোরিয়ার বন্দরে নোঙ্গর করে।

দক্ষিণ কোরিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর সঙ্গে একটি যৌথ মহড়ায় অংশে নিতে আসা ইউএসএস রোনাল্ড রিগ্যান ও অন্যান্য রণতরী দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের বন্দরনগরী বুসানের নৌ বাহিনী ঘাঁটিতে নোঙ্গর করে।

মার্কিন নৌবাহিনীর বিমানবাহী রণতরী এ কোরীয় উপকূলে নোঙ্গর করার মধ্য দিয়ে উত্তর কোরিয়ার প্রতি একটি কৌশলগত প্রতিরোধের চিত্র প্রকাশ করে। যা এ অঞ্চলে উত্তর কোরিয়ার প্রতি একটি স্পষ্ট বার্তা বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

স্ট্রাইক গ্রুপ কমান্ডার রিয়ার এডমিরাল মাইকেল ডোনেলি বলেন, এ সফরের মধ্য দিয়ে দুই দেশের নৌ বাহিনীর মধ্যে সম্পর্ক ও সহযোগিতা জোরদার করার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার প্রতি কোনো বার্তা আছে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা কূটনৈতিকদের মাধ্যমে বার্তা দিতে চাই। তবে এ মহড়ার দ্বারা আমরা বােঝাতে চাই যে, যে কোনো হুমকির মোকাবিলায় আমরা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সক্ষম।

জাহাজে থাকা এক নৌ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আমরা একটি বিরতি নিতে চেয়েছিলাম। তবে ভূ-রাজনৈতিক আশঙ্কা আমাদের মাথায় রাখতে হবে। আমরা কখনো ভুলে যেতে পারব না যে, আমরা কেন এখানে এসেছি।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com