ইসরায়েলের পারমাণবিক অস্ত্র আছে, ইঙ্গিত প্রধানমন্ত্রীর

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ইয়ার ল্যাপিড
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ইয়ার ল্যাপিড

মধ্যপ্রাচ্যে একমাত্র ইসরায়েলের কাছে পরমাণু অস্ত্র রয়েছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। তবে এ অস্ত্র থাকা বা না থাকা নিয়ে কখনোই মুখ খোলেনি ইহুদি রাষ্ট্রটি। তবে এবার মুখ ফসকে এ বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়ে ফেললেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইয়ার ল্যাপিড।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, গত সোমবার দেশটির পারমাণবিক শক্তি কমিশনের এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী। সেখানে বক্তব্য দেওয়ার সময় তিনি বলেন, ‘লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালানো ও হামলা প্রতিরোধ করা, দুই জায়গাতেই আমাদের সক্ষমতা রয়েছে। এগুলো আমাদের শক্তির জায়গা।’

এর বাইরে দেশটির আরও একটি শক্তির জায়গা রয়েছে উল্লেখ করে ইয়ার ল্যাপিড বলেন, বিশ্ব মিডিয়া তাদের ‘অন্যান্য সক্ষমতা’ সম্পর্কে জানে। আর এই ‘অন্যান্য সক্ষমতা’ তাদের এবং পরবর্তী প্রজন্মকে ওই অঞ্চলে টিকে থাকতে সহায়তা করবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এখানে ‘অন্যান্য সক্ষতা’ বলতে পরমাণু অস্ত্র সম্পর্কে ইঙ্গিত দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী, এমনটাই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। ইসরায়েলের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিরা এই প্রথম নয়, এর আগেও এমন মন্তব্য করেছিলেন। ১৯৬০ সালে দেশটির একজন জুনিয়র মন্ত্রী হিসেবে শিমন প্রাইজ বলেছিলেন, ‘মধ্যপ্রাচ্যে ইসরায়েলই পরমাণু অস্ত্র থাকা প্রথম দেশ নয়।’

মন্ত্রিসভার বৈঠকে দেশটির সাবেক প্রাধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুও একবার ‘পরমাণু শক্তি’ শব্দটি ব্যবহার করে পরে সেটি তুলে নিয়ে ‘জ্বালানি শক্তি’ শব্দ ব্যহার করেছেন। শুধু তাই নয়, দেশটির আরও একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইয়াহুদ ওলমার্টও জার্মান একটি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় ইসরায়েলের পারমাণবিক অস্ত্র সম্পর্কে বলে পরে বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com