ইউক্রেনের রুশ অধিকৃত অঞ্চলে গণভোট শুরু

রুশ অধিকৃত অঞ্চলে স্থাপিত একটি ভোটকেন্দ্র
রুশ অধিকৃত অঞ্চলে স্থাপিত একটি ভোটকেন্দ্রছবি: কালবেলা

ইউক্রেনের রুশ অধিকৃত অঞ্চলগুলোতে গণভোট শুরু করেছে রাশিয়া সমর্থিত কর্তৃপক্ষ। আজ শুক্রবার এ গণভোট শুরু হয়। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এমনটা জানা যায়।

দেশটিতে রাশিয়ার সামরিক অভিযান পরিচালনার সাত মাস পর এ গণভোটের আয়োজন করা হচ্ছে। মূলত অধিকৃত অঞ্চলগুলো রাশিয়ার সীমানায় অন্তর্ভুক্ত করার উদ্দেশ্যেই এ আয়োজন বলে জানিয়েছে মস্কো।

রুশ অধিকৃত অঞ্চলে স্থাপিত একটি ভোটকেন্দ্র
রাশিয়ার গণভোট আয়োজনের ‘নিন্দা’ বিশ্বনেতাদের

কিয়েভ দাবি করছে, অঞ্চলগুলোর বাসিন্দাদের জোরপূর্বক ভোট প্রদানে বাধ্য করছে রুশ সমর্থিত কর্তৃপক্ষ। গণভোটে অংশগ্রহণ না করলে তাদের শাস্তি দেওয়ার ভয়ও দেখানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করে কিয়েভ।

সম্প্রতি ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে দেশটির সেনারা রুশ বাহিনীকে হটিয়ে একটি উল্লেখযোগ্য অঞ্চল পুনঃদখল করে নেয়। এরপরই এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে পুতিন প্রশাসন।

রুশ অধিকৃত অঞ্চলে স্থাপিত একটি ভোটকেন্দ্র
সৈন্য সমাবেশের নির্দেশ পুতিনের, দিলেন পারমাণবিক হামলার ইঙ্গিতও

অন্যদিকে গত বুধবার এক টেলিভিশন ভাষণে পুতিন দেশটিতে সেনা সমাবেশের ঘোষণা দেন। ইউক্রেনে হামলা জোরদার করতে এমন পদক্ষেপ নেন রুশ প্রেসিডেন্ট। এ ছাড়াও সম্ভাব্য পারমাণবিক হামলার ব্যাপারেও ইঙ্গিত দেন তিনি।

গতকাল রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ এক বিবৃতিতে এ নিয়ে কথা বলেন। এ সময় তিনিও রুশ প্রেসিডেন্টের ঘোষণাকে আরও জোর দিয়ে পারমাণবিক হামলার সম্ভাব্যতা নিশ্চিত করেন।

ইউক্রেনের দোনেৎস্ক, লুহানস্ক, খেরসান ও জাপোরিজিয়াতে এ গণভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। লুহানস্কের রাশিয়া সমর্থিত নেতা লিওনিক পাসেচনিক বলেন, আমরা ৮ বছর ধরে রাশিয়ার সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার অপেক্ষা করছি। আমরা ইতোমধ্যেই রাশিয়ার অংশ হয়ে গেছি, এটি শুধু সময়ের ব্যাপার মাত্র।

ভোট গ্রহণের জন্য মস্কোতেও ভোটকেন্দ্র চালু করেছে রাশিয়া। অঞ্চলগুলোর যেসব বাসিন্দা রাশিয়ায় বসবাস করেন তারা সেসব কেন্দ্রে ভোট প্রদান করবেন বলে রুশ কর্তৃপক্ষ জানায়।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com