বরিশাল মেডিকেলের অর্ধেকের বেশি যন্ত্র অচল, ভোগান্তিতে রোগীরা

বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালছবি : সংগৃহীত

বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগ নির্ণয় যন্ত্রের অর্ধেকের বেশি অচল হওয়ায় ব্যাহত হচ্ছে চিকিৎসাসেবা। এর ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে রোগী ও তাদের স্বজনদের।

জানা গেছে, হাসপাতালের একমাত্র এম আর আই মেশিনটি ২০০৭ সালে চালু হয়। সেটি কোনো মতে ৯ বছর চললেও গত ৬ বছর ধরে তা বিকল। আর হাসপাতালের একমাত্র সিটি স্ক্যান মেশিনটি চালু হয় ২০১৪ সালে। গত ৪ বছর ধরে সেটিও অচল হয়ে পড়েছে। সরকারি হাসপাতালের এমন দশায় পাশেই গড়ে উঠছে একের পর ব্যক্তি মালিকাধীন ল্যাব।

রোগী ও তাদের স্বজনদের অভিযোগ, সরকারি হাসপাতালের মেশিন নষ্টের অজুহাতে বাইরের ল্যাবগুলোতে তাদের পরীক্ষা করাতে বাধ্য করা হয়। ফলে সেখানে রোগীদের অনেক বেশি খরচে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে।

অভিযোগ উঠেছে, বাইরে ল্যাবের সঙ্গে হাসপাতালের একটি সিন্ডিকেট গড়ে উঠেছে। তারা এই মেডিকেল কলেজটিকে লুটপাট করে খাচ্ছে অথচ এসব বিষয় দেখার কেউ নেই।

এ বিষয়ে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচ এম সাইফুল ইসলাম জানান, জরুরি ভিত্তিতে ৩৩টি মেশিনের ১৩৫টির যন্ত্রের চাহিদা চেয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে চিঠি দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি যেসব যন্ত্র নষ্ট রয়েছে সেগুলো সচল করতে সবাই তাদের সহযোগিতা করছেন।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com