রোগ সারাতে মিউজিক থেরাপি

রোগীকে মিউজিক শোনানো হচ্ছে।
রোগীকে মিউজিক শোনানো হচ্ছে।ছবি : সংগৃহীত

মিউজিক শুনিয়ে রোগ সারানোর চেষ্টায় বেশ এগিয়ে গেছে চিকিৎসাবিজ্ঞান। অবশ্য প্রাচীনকালেও এ চেষ্টা হয়েছিল। শারীরিক ব্যথা কমাতে মিউজিক থেরাপি দিয়ে সফল হয়েছিলেন প্রাচীন গ্রিসের লোকেরা। কিন্তু মিউজিক কী সত্যিই রোগ সারাতে পারে?

রোগীকে গান শোনাচ্ছেন চিকিৎসকরা।
রোগীকে গান শোনাচ্ছেন চিকিৎসকরা।ছবি : সংগৃহীত

মূলত গান শুনলে মগজে ডোপামিন নিঃসৃত হয়। এ হরমোন মগজে আনন্দ-অনুভূতির উদ্দীপনা জাগায়। সেটিকেই চিকিৎসাবিজ্ঞানে কাজে লাগিয়েছে বিজ্ঞানীরা।

প্রতীকী ছবি

শব্দের বিভিন্ন তরঙ্গ মগজে নানা ধরনের উদ্দীপনা জাগায়। যেমন বিটা তরঙ্গ মস্তিস্ক চাঙা রাখে। পপ ও রক ঘরানার গানগুলো এ তরঙ্গের হয়। ফলে এ ধরনের গান শুনলে ক্লান্তি দূর হতে পারে। আলফা তরঙ্গ মন প্রশান্ত করে। এটি পাওয়া যায় কান্ট্রি ও ফোক গানে। মেডিটেশনের জন্য উপযোগী হলো থিটা তরঙ্গ।

শুয়ে গান শুনলে কমে পিঠ ও মেরুদণ্ডের ব্যথা।
শুয়ে গান শুনলে কমে পিঠ ও মেরুদণ্ডের ব্যথা।ছবি : সংগৃহীত

বলা হয়, দৈনিক ২৫ মিনিট মিউজিক শুনলে পিঠ ও মেরুদণ্ডের ব্যথা সারতে পারে। সংগীতের এসব গুণাগুণ নিয়ে বিশ্বের নানা স্থানে ১১টি গবেষণা হয়েছে।

দরবারি কানাড়া নামে একটি রাগ মানুষের শরীরে এন্ডোরফিন নিঃসৃত করে। এ হরমোন শরীরের ব্যথা সারাতে পারে।

প্রতীকী ছবি

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে আহতদের চিকিৎসায় মৃদুলয়ের মিউজিক ব্যবহার হয়েছিল। লয় দিয়ে মূলত গানের তাল পরিমাপ করা হয়। এ লয় হৃদস্পন্দনের ওপর প্রভাব ফেলে বলে মত দিয়েছে ম্যাসাচুসেট জেনারেল হাসপাতালের গবেষকরা। মৃদুলয় রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।

প্রতীকী ছবি

হার্টঅ্যাটাকের পর এ লয়ের গান নিয়মিত শুনলে উদ্বেগ কমে। জটিল সার্জারির আগে রোগীদের মৃদুলয়ের সেতার ও সরোদ শুনিয়ে মানসিক উদ্বেগ স্থিতিশীল অবস্থায় আনা হয়।

আলঝেইমারস প্রতিকারে মিউজিকের ব্যবহার রয়েছে। স্ট্রোক হয়ে বাকশক্তি হারানো রোগীকে নিয়মিত গান শোনালে তার সেরে ওঠার সম্ভাবনা বাড়ে। অ্যামনেশিয়া, ডিমনেশিয়া ও সিজোফ্রেনিয়াতেও মিউজিক থেরাপি কাজে লাগে। অন্তঃসত্ত্বা নারী নিয়মিত মিউজিক শুনলে গর্ভের শিশুর মগজের বিকাশ ঘটে। ২০১৩ সালে ইউএস ন্যাশনাল লাইব্রেরি মেডিসিন দাবি করে, সংগীত শিশুদের শ্রবণশক্তি বাড়াতে পারে।

গান শুনছে এক শিশু।
গান শুনছে এক শিশু।ছবি : সংগৃহীত

চিকিৎসায় অনেক আগে থেকেই মিউজিক থেরাপি ব্যবহার করা হলেও এটি কোনো পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসাপদ্ধতি নয়, রোগ নিরাময়ের সহায়ক মাত্র।

সূত্র : মিউজিকথেরাপি ডট ওআরজি, মেডিক্যালনিউজটুডে ডট কম

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com