মেঘনায় ৩ জেলে গুলিবিদ্ধ, একজনকে অপহরণ

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ জেলেরা।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ জেলেরা।ছবি : কালবেলা

লক্ষ্মীপুরে মেঘনা নদীতে জলদস্যুদের গুলিতে তিনজন আহত ও একজনকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার মধ্যরাতে রামগতি উপজেলার চর আবদুল্লাহ ইউনিয়নের পশ্চিম পাশে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন কমলনগর উপজেলার চরফলকন এলাকার মো. আব্বাস মাঝি (২৮), রামগতির পশ্চিম চরকলাকোপা গ্রামের মো. ইউসুফ ও নোয়াখালীর সুবর্ণচরের মো. ফারুক (৩৫)। নিখোঁজ জেলে মহিউদ্দিনেরও (৩৫) বাড়ি সুবর্ণচর এলাকায়।

আহতরা জানান, আব্বাস মাঝিসহ ছয় জেলে যান মেঘনায় মাছ ধরতে। জাল ফেলার প্রস্তুতির সময় জলদস্যুরা তাদের দিকে গুলি ছুড়লে তিনজন বিদ্ধ হন। এরপর তারা নৌকা থেকে মহিউদ্দিনকে নিয়ে যায়।

রাত ২টার দিকে কমলনগর উপজেলার লুধুয়া মৎস্যঘাট এলাকার আড়তদাররা প্রশাসন ও কোস্টগার্ডকে সঙ্গে নিয়ে জেলেদের উদ্ধার করেন। রাত ৪টার দিকে তাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গুলিবিদ্ধ জেলেরা।
জলদস্যুদের গোলাগুলির পর ৩ মরদেহ উদ্ধার

লুধুয়া মৎস্যঘাটের আড়তদার মো. লিটন বলেন, ‘মধ্যরাতে আব্বাস মাঝির নৌকায় হামলার ঘটনা ঘটে। আমরা কমলনগর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবদুল কুদ্দুছ ও আলেকজান্ডার কোস্টগার্ডের কন্টিনজেন্ট কমান্ডারকে বিষয়টি জানিয়ে নিজেরাই গিয়ে জেলেদের উদ্ধার করে এনেছি।’

সদর হাসপাতালের চিকিৎসক এ কে আজাদ বলেন, ‘তিনজন গুলিবিদ্ধ রোগী এসেছেন। তাদের ভর্তি রাখা হয়েছে। তারা আমাদের পর্যবেক্ষণে আছেন।’

এ বিষয়ে বড়খেরী নৌ পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক ফেরদৌস আহমেদ বলেন, ‘মেঘনা নদীতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। রাতেই ঘটনাটি শুনেছি। এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি।’

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com