মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাপনা ব্যয় বেশি দেখানোর অভিযোগ

মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাপনা ব্যয় বেশি দেখানোর অভিযোগ

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত বীমা খাতের প্রতিষ্ঠান মেঘনা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড ২০২১ অর্থবছরের ৩১ ডিসেম্বর আর্থিক প্রতিবেদনে বিভিন্ন ধরনের বীমার বিপরীতে ব্যবস্থাপনা ব্যয় বেশি দেখিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে কোম্পানির নিরীক্ষক ম্যাবস অ্যান্ড জে পার্টনার্স চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস।

প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে কোম্পানিটির নিরীক্ষক জানিয়েছে, ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ অর্থবছরের বিভিন্ন ধরনের বীমার বিপরীতে কোম্পানিটি ৪১ কোটি ১১ লাখ ৩০ হাজার ৬৩০ টাকা ব্যবস্থাপনা ব্যয় দেখিয়েছে। কিন্তু ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের সীমা অনুসারে সর্বোচ্চ ২২ কোটি ২৫ লাখ ৬৪ হাজার ৯৬ টাকা ব্যয় দেখাতে পারত কোম্পানিটি। এ ক্ষেত্রে কোম্পানিটি ১৮ কোটি ৮৫ লাখ ৬৬ হাজার ৫৩৪ টাকা অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা ব্যয় দেখিয়েছে।

মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাপনা ব্যয় বেশি দেখানোর অভিযোগ
মুনাফার এক-তৃতীয়াংশের কম লভ্যাংশ ঘোষণা মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের

৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০২১ অর্থবছরে মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৪ পয়সা। আগের অর্থবছরের একই সময়ে যা ছিল ৯৫ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৭ টাকা ৮৮ পয়সায়, যা আগের অর্থবছরে ছিল ২৬ টাকা ৪ পয়সায়।

সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ বিনিয়োগকারীদের জন্য ৩ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।

ঘোষিত লভ্যাংশ ও আলোচ্য অর্থবছরের অন্যান্য এজেন্ডায় শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদন নিতে আগামী ২২ ডিসেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আহ্বান করেছে কোম্পানিটি। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৪ অক্টোবর।

সবশেষ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে, চলতি ২০২২ অর্থবছরের প্রথমার্ধে বা ছয় মাসে (জানুয়ারি-জুন) মেঘনা ইন্স্যুরেন্সের ইপিএস হয়েছে ২৬ পয়সা। আগের অর্থবছরের একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ১০ পয়সা।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com