বিকেবি'র সিনিয়র অফিসার ব্যাচ-২০১২ এর পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

বিকেবি'র সিনিয়র অফিসার ব্যাচ-২০১২ এর পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

‘এসো মিলি প্রাণের স্পন্দনে, বন্ধুত্বের  বন্ধনে" এই প্রতিপাদ্য সামনে রেখে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের (বিকেবি) সিনিয়র অফিসার ব্যাচ-২০১২ এর পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শুক্রবার ধানমন্ডির একটি রেস্টুরেন্টে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক সিনিয়র অফিসার ব্যাচ-২০১২ এর প্রথম পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে ২৬০ জন অফিসার অংশ নেন। এ সময় ব্যাংকে যোগদানের পর দীর্ঘ ১০ বছর পর ব্যাচম্যাটরা একে অপরকে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন। ব্যাচম্যাটদের সুখ-দুঃখে পরস্পর-পরস্পরের পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন তারা।

ব্যাংকার পিনাকী রঞ্জন দাস রনি বলেন, এ আয়োজন সবার মাঝে একটি আন্তরিক সম্পর্ককে আরও গতিশীল করবে। প্রযুক্তির কারসাজিতে সবাই একই ছাদের নিচে থাকলেও সরাসরি এমন আয়োজন আসলেই খুব ভালো লাগছে। আমাদের অঙ্গীকার হবে পরস্পরকে সহযোগিতা এবং উন্নত সেবা নিশ্চিত করার মধ্য দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া।

এ সময় বিকেবির সিনিয়র অফিসার তানভীর মিথুন বলেন, দীর্ঘদিন পর ব্যাচম্যাটদেরকে কাছে পেয়ে আনন্দ লাগছে। প্রতি বছরই এমন আয়োজনের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন মিথুন।

সিলেট থেকে আগত মিটুন চৌধুরী বলেন, এমন দিনটির জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষায় ছিলাম, যেখানে থাকি, যতদূরেই থাকি ব্যাচের টানে সেখানেই ছুটে যাব। চট্টগ্রাম থেকে আগত বন্ধু কামরুল এমন সুন্দর জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনের জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান।

বরিশাল থেকে আগত বিশিষ্ট ব্যাংকার মুরসালিন বলেন, এ ধরনের আয়োজন ভবিষ্যতে ব্যাচম্যাটদের ঐক্য আরও সুদৃঢ় করবে। তিনি প্রতি বছরই রিইউনিয়ন প্রত্যাশা করেন।

র‌্যাফেল ড্র ও এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষ করে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com