স্ত্রীকে না পেয়ে তরুণের ‘আত্মহত্যা’

প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে গলায় ফাঁস দিয়ে এক তরুণ আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২২ বছর বয়সী ওই তরুণের নাম মুনছুর। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার মহাদান ইউনিয়নের বিলবালিয়া মধ্যপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার প্রেক্ষাপট

স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, মুনছুর কুয়েত প্রবাসী আনিসুর রহমান রসুলের একমাত্র ছেলে। সে দশম শ্রেণিতে পড়ার সময় একই ক্লাসের শিফা নামে এক মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান এবং পরিবারের অজান্তে গোপনে বিয়ে করেন।

বিষয়টি দুই পরিবারের মধ্যে জানাজানি হলে বিরোধ তৈরি হয়। পরে সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে বিষয়টি মীমাংসা হয়। এক বছর পর বিভিন্ন কলহের কারণে আবারও তাদের সংসার ভেঙে যায়।

স্থানীয়রা জানান, দুজনের মধ্যে বিচ্ছেদের পর তারা আবার গোপনে পালিয়ে বিয়ে করেন। পরে কিছুদিন তারা ঢাকায় বসবাস করেন। তিন মাস আগে তারা ঢাকা থেকে বাড়িতে চলে আসেন। আসার পর থেকেই নতুন করে পারিবারিক কলহে জড়ায়।

দুই পরিবারের কলহের মূলে ছেলে ও মেয়ের মা। বেকার ও অল্প শিক্ষিত হওয়ায় ওই ছেলের হাতে মেয়েকে তুলে দিতে চান না পরিবার। অপরদিকে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক না দিলে ছেলের বউকে মেনে নিতেও নারাজ ছেলের পরিবার। দুই পরিবারের এমন জেদের কারণে মুনছুর ও শিফা স্বামী-স্ত্রী হয়েও আলাদা থাকতেন। এর জেরে মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে নিজ ঘরের মাচার ভেতর ধর্ন্যার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন মুনছুর।

কী বলছে পুলিশ

সরিষাবাড়ী থানার ওসি মুহাম্মদ মহব্বত কবির বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হচ্ছে। বাদীর অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com