খুলনায় হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়া নবজাতক উদ্ধার হয়নি

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।
খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।পুরোনো ছবি

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়া নবজাতকটি এক দিন পেরিয়ে গেলেও উদ্ধার হয়নি। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে থেকে নবজাতক চুরির এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে নবজাতক চুরির ঘটনায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। এ ছাড়া ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে সোনাডাঙ্গা থানায় জিডি করা হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার মরিয়ম বেগম নামে এক নারী খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। বিকেলে ছাড়পত্র নিয়ে মরিয়ম হাসপাতালের গেটের সামনে স্বজনদের নিয়ে দাঁড়ান। এ সময় অ্যাম্বুলেন্স সিন্ডিকেটের সদস্যদের সঙ্গে মরিয়মের ভাই ও স্বজনদের বিরোধ সৃষ্টি হয়। সিন্ডিকেট চক্রের সদস্যরা তাদের ওপর চড়াও হয়। এক পর্যায়ে এক নারী কৌশলে নবজাতককে কোলে নেন। তবে কিছু সময়ের মধ্যে ওই নারী ভিড়ের মধ্যে হারিয়ে যান।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।
সাভারে চুরি যাওয়া শিশু উদ্ধার হয়নি দুদিনেও

শিশুটির মামা মোস্তফা জানান, শিশুটিকে কোলে নিয়ে মানুষের ভিড়ে হারিয়ে যাওয়া ওই নারী শিশু চুরি সিন্ডিকেট চক্রের সদস্য। এ ঘটনার পর হাসপাতাল এলাকায় খোঁজ নিয়েও কোনো সন্ধান মেলেনি। তারা ধারণা করছেন, অ্যাম্বুলেন্স সিন্ডিকেটের সঙ্গে যোগসাজশে এটি করা হয়েছে।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক মো. রবিউল হাসান জানিয়েছেন, শিশুটি হাসপাতাল এলাকা থেকে চুরি হয়েছে। ঘটনা তদন্তে আরএমও ডা. সোহসকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে জিডি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সিসিটিভির ফুটেজ পুলিশকে সরবরাহ করার পাশাপাশি সার্বিক সহযোগিতা করা হচ্ছে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com