গরুর ভবিষ্যদ্বাণী—বিশ্বকাপ জিতবে ব্রাজিল!

ফুটবল বিশ্বকাপের ভবিষ্যদ্বাণী করছে গরু।
ফুটবল বিশ্বকাপের ভবিষ্যদ্বাণী করছে গরু।ছবি : কালবেলা

চলছে ফুটবল খেলার বড় আসর। প্রতিবারের বিশ্বকাপে কার ঘরে উঠবে শিরোপা তা নিয়ে চলে তর্ক-বিতর্ক। তবে এই তর্কে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে থাকে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের সমর্থকরা।

বিশ্বকাপ আসরে কোন দল শিরোপা নিতে পারে তা নিয়েও ভবিষ্যদ্বাণীর জন্য করা হয় নানা আয়োজন। এর জন্য আগে ব্যবহার করা হয়েছে অক্টোপাসও। কিন্তু এবার কুষ্টিয়া শহরে ফুটবল সমর্থকরা ভবিষ্যদ্বাণী করতে ব্যবহার করেছে গরু।

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরে আড়ুয়াপাড়া তরুণ সংঘ পাঠাগার ও ক্লাবের ফুটবলপ্রেমীরা ব্যতিক্রমধর্মী এমন আয়োজন করে।

ভবিষ্যদ্বাণীর জন্য ক্লাবের সদস্যরা প্রথমে একটি নির্দিষ্ট দূরত্বে তিনটি ড্রাম রাখে। এরপর প্রতিটি ড্রামে ধারাবাহিকভাবে ব্রাজিল, জার্মান এবং আর্জেন্টিনার পতাকা মোড়ানো হয়। এরপর ড্রামগুলোর ওপরে রাখা হয় ঘাস। গরু যে দেশের পতাকা মোড়ানো ড্রামের ঘাস খাবে, সেই দেশই হবে এবারের কাতার বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন!

এদিকে ভাগ্য নির্ধারণের এই আয়োজন দেখতে প্রিয় দলের জার্সি পরে বিভিন্ন জায়গার থেকে এসেছেন সমর্থকরা। নিজেদের পক্ষে ফল প্রত্যাশায় প্রার্থনা আর উল্লাসে ব্যস্ত তারা।

অন্যদিকে ভবিষ্যদ্বাণী প্রক্রিয়াটি শুরু করার জন্য ড্রাম থেকে গরুটিকে ২০ ফুট দূরে দাঁড় করানো হয়। পরে সঞ্চালকের নির্দেশনায় গরুটিকে ছেড়ে দেওয়া হলে গরুটি ব্রাজিলের পতাকা মোড়ানো ড্রামটিতে রাখা ঘাসে মুখ দেয়। আর এতে উপস্থিত ব্রাজিলের সমর্থকরা বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস শুরু করে। অন্যদিকে হতাশায় পড়েন আর্জেন্টিনা ও জার্মান সমর্থকরা।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় দেবোত্তম জাহিদ, খুরশিদ নামে দুই ব্রাজিল সমর্থক জানান, আধ্যাত্মিক গরুর ভাগ্য নির্ধারণ যথার্থ হয়েছে। নেইমারের ব্রাজিলই কাতার বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হবে।

আয়োজক কমিটির প্রধান মাহমুদ রেজা বুলবুল জানান, প্রথমবারের মতো এমন আয়োজন দারুণ উপভোগ্য করেছে সবাইকে। প্রচুর দর্শক তাদের পক্ষে ছিল। তাই এমন আয়োজন ভবিষ্যতেও চলবে।

তিনি বলেন, ‘ব্রাজিল নিঃসন্দেহে শক্তিশালী দল। আমার মনে হয় গরুটি যে দল বেছে নিয়েছে সেই ব্রাজিলই এবার চ্যাম্পিয়ন হবে।’

অবশ্য তিনি এ আয়োজনটি নিছক উন্মাদনা হিসেবেই নিয়েছেন বলে দাবি করেন।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com