রাজশাহীতে আ.লীগের জনসভা ইতিহাস হয়ে থাকবে : লিটন

বক্তব্য দেন এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।
বক্তব্য দেন এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।ছবি : সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করতে অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছে। এই জনসভা সফল করার মধ্য দিয়ে রাজশাহী অঞ্চলে আওয়ামী লীগ আরও বেশি সুদৃঢ় হবে। আমরা আশা করছি, জনসভা রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা ময়দান ছাড়িয়ে শহরের মূল সড়ক ও মহাসড়কে জনগণ বিস্তৃত হবে। কথা দিচ্ছি, রাজশাহীতে শেখ হাসিনার আসন্ন জনসভা ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।’

আগামী ২৯ জানুয়ারি রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করার লক্ষ্যে গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নগরীর কুমারপাড়ার দলীয় কার্যালয়ে রাজশাহী মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের যৌথ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র লিটন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যার জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত হবে। সেই লক্ষ্যে রাজশাহীর প্রতিটি ওয়ার্ড, পাড়া-মহল্লায় সকল নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণের মধ্যে উৎসাহ ও উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে।’

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামালের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য আখতার জাহান, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার, সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াদুদ দারা। সভা সঞ্চালনা করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ডাবলু সরকার।

বক্তব্য দেন এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন।
রাজশাহীতে শীতার্তদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার কম্বল বিতরণ করেছেন মেয়র লিটন

সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দুটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এগুলো হলো আগামীকাল ২৭ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে একযোগে প্রচার মিছিল অনুষ্ঠিত হবে। পরদিন শনিবার বিকেল ৪টায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে নগর আওয়ামী লীগের প্রচার মিছিল অনুষ্ঠিত হবে।

বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী জিন্নাতুন নেসা তালুকদার, রাজশাহী সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য আদিবা আনজুম মিতা, রাজশাহী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, মাহ্ফুজুল আলম লোটন, বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, সৈয়দ শাহাদত হোসেন, রেজাউল ইসলাম বাবুল, ডা. তবিবুর রহমান শেখ, নাঈমুল হুদা রানা, বদরুজ্জামান খায়ের, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আমানুল হাসান দুদু, জাকিরুল ইসলাম সান্টু, অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন, অধ্যক্ষ এস এম একরামুল হক, অ্যাডভোকেট শরিফুল ইসলাম শরীফ, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, আসাদুজ্জামান আজাদ, আহসানুল হক পিন্টু, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাবলু, অধ্যক্ষ মোস্তাফিজুর রহমান মানজাল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আসলাম সরকার, মীর ইসতিয়াক আহমেদ লিমন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম আসাদুজ্জামান, অ্যাডভোকেট আবদুস সামাদ, মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম বুলবুল, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক প্রদ্যুৎ কুমার সরকার, মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক দিলীপ কুমার সরকার, মহিলাবিষয়ক সম্পাদিকা ইয়াসমিন রেজা ফেন্সিসহ রাজশাহী জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com