ভগ্নিপতিকে পিটিয়ে হত্যা, শ্যালক আটক

নিহত দীপক ঘোষ মুন্না।
নিহত দীপক ঘোষ মুন্না।ছবি : সংগৃহীত

খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলায় শ্যালকের বিরুদ্ধে ভগ্নিপতিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল সোমবার রাতে রামগড় পৌরসভার শ্মশানটিলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত দীপক ঘোষ মুন্না (৩৮) পেশায় রাজমিস্ত্রী ছিলেন। অভিযুক্ত সাগর ত্রিপুরা ও তার এক সহযোগীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে রামগড় থানা পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল মধ্যরাতে মদ্যপ অবস্থায় সাগর ও তার কয়েকজন সহযোগী মুন্নাকে তার বাড়িতে একা পেয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। তিনি মাথায় গুরুতর আঘাত পান। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লীচিকিৎসকের কাছে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়িতে নিয়ে যায়। আজ মঙ্গলবার সকালে মুন্নার অবস্থার অবনতি হলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

মুন্নার বাবা রাখাল ঘোষ জানান, দীর্ঘদিন ধরে তার ছেলে ও পুত্রবধূর সম্পর্ক খারাপ যাচ্ছিল। তার পুত্রবধূ কনিকা গার্মেন্টসে চাকরির সুবাদে চট্টগ্রাম থাকেন। কয়েকবার চেষ্টা করেও কনিকাকে বাড়িতে আনা যায়নি। এ নিয়ে সালিশও হয়েছে। সেখানে মুন্নার সঙ্গে কনিকার বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত হয়। এসব বিষয়ে শ্যালক সাগরের সঙ্গে মুন্নার ঝামেলা চলছিল।

ক্ষুব্ধ হয়ে সাগর তার ছেলে মুন্নাকে হত্যা করেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

রামগড় থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com