পরীক্ষায় ফেল করা শিক্ষার্থীদের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত!

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার চির্কা বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার চির্কা বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ। ছবি : কালবেলা

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার চির্কা বহুমূখি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের মডেল টেস্ট পরীক্ষায় ফেল করে ফরম ফিলআপের সুযোগ না পাওয়ায় গত ১৯ জানুয়ারি অধ্যক্ষের কক্ষে তালা দেয় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় এক শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, উপজেলার ৯ নম্বর গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের চির্কা বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজে ২০২৩ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য মডেল টেস্ট পরীক্ষা দেয় ১৪১ জন শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে ২০ জন শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়। অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের ফরম ফিলআপের সুযোগ না দেওয়ায় তারা গত ১৯ জানুয়ারি সকালে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আবু জাফর মো. সামছুদ্দিনের রুমে তালা দেয়। এ সময় সিনিয়র সহকারী শিক্ষক মোস্তফা জামান বাধা দিলে তার ওপর হামলা করে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনার বিচারের দাবি জানিয়ে গতকাল রোববার ক্লাস বন্ধ করে ও কালো ব্যাচ ধারণ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষকরা।

প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা জানান, তারা ৫-৭ বিষয় করে অকৃতকার্য হয়েছে। তাদের কীভাবে ফরম ফিলআপ করাব। শিক্ষার্থীরা রাজনৈতিক ছত্রছায়ার কারণে এত বড় দুঃসাহস দেখিয়েছে। তাদের লাঞ্ছিত করা হয়েছে এবং দারোয়ানকে মারধর করা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আবু জাফর মো. সামছুদ্দিন বলেন, ‘আমি প্রতিষ্ঠানের কাজে বোর্ডে ছিলাম। ফেল করা শিক্ষার্থীরা আমার রুমে তালা দেয় এবং শিক্ষকদের লাঞ্ছিত করেছে।’

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার চির্কা বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ।
স্বাস্থ্য শিক্ষার নতুন সচিব আজিজুর রহমান

কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু সাহেদ সরকার বলেন, ‘বিষয়টি দুঃখজনক। আমরা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে রোববার সন্ধ্যায় থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি।’

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এ কে এম মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ্ বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে তিনি অবগত রয়েছেন। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আ. মান্নান অভিযোগের কথা স্বীকার করে বলেন, আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com