হানিমুনে গিয়ে সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন নববধূ

  ভুক্তভোগী মনিরুল ইসলাম।
ভুক্তভোগী মনিরুল ইসলাম।ছবি : কালবেলা

পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে হানিমুনে গিয়ে সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছেন এক নববধূ। এ সময় স্ত্রীর সাবেক প্রেমিক ও তার সহযোগীদের মারধরের শিকার হয়েছেন স্বামী মনিরুল ইসলাম।

গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে কুয়াকাটা জিরো পয়েন্ট ফ্রাই মার্কেট সংলগ্ন সৈকতে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মনিরুলকে হেফাজতে নেয়, তবে তার স্ত্রীকে খুঁজে পায়নি।

মনিরুল ইসলামের বাড়ি বরগুনা জেলায়। তিনি দীর্ঘদিন সিঙ্গাপুর প্রবাসী ছিলেন। ভুক্তভোগী মনিরুল বলেন, ‘আমরা সৈকতে ঘোরাঘুরির পরে সন্ধ্যায় রুমে আসি। কিন্তু আমার স্ত্রী আমাকে বারবার অনুরোধ করলে ফের সৈকতে যাই। সৈকতের জিরো পয়েন্টে দাঁড়িয়ে থাকার কিছুক্ষণ পর সে আমাকে অনুরোধ করে হাঁটাহাটির জন্য। আমরা ফ্রাই মার্কেট পার হয়ে সামনে গেলে সেখানে অন্ধকারে হঠাৎ আমার ওপর ৪-৫ জন লোক আক্রমণ করে। সে সময় আমার স্ত্রী আমাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেনি বরং যারা আমাকে মেরেছে তাদের সঙ্গে পালিয়ে যায়।’

মারধরের শিকার মনিরুল কয়েকজনকে নিয়ে পুলিশের কাছে যান।
মারধরের শিকার মনিরুল কয়েকজনকে নিয়ে পুলিশের কাছে যান।ছবি : কালবেলা

প্রত্যক্ষদর্শী রুমি জানান, তিনি তাদের স্বামী-স্ত্রী দুজনকে সৈকতে নামতে দেখেছেন। কিছুক্ষণ পরেই কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে মনিরুলকে পুলিশ বক্সে যেতে দেখেন।

মনিরুলের শ্বশুর হারুন অর-রশিদ বলেন, ‘আমরা ঘটনা শোনার সঙ্গে সঙ্গে চলে এসেছি। তবে আমার মেয়ে এখন কোথায় আছে তা এখনো জানতে পারিনি। জামাইকে নিয়ে বাড়ি যাচ্ছি। পারিবারিকভাবে বিষয়টি আমরা দেখব।’

ট্যুরিস্ট পুলিশের কুয়াকাটা জোনের পরিদর্শক হাসনাইন পারভেজ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগী পর্যটককে উদ্ধার করা হয়। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। আশেপাশে খোঁজাখুঁজি করেও তার স্ত্রীকে পাওয়া পায়নি। মনিরুলকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com