নিজ ঘরে আড়ায় ঝুলছিল এসএসসি পরীক্ষার্থীর মরদেহ

ঈশ্বরদী থানা।
ঈশ্বরদী থানা।পুরোনো ছবি

পাবনার ঈশ্বরদীতে শেফা আক্তার নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে কী কারণে এমন কাজ করেছে, বিষয়টি উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে বলে জানিয়েছেন ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার।

গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের ভাড়ইমারী উত্তরপাড়া এলাকার একটি বাড়ি থেকে শেফার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সে ভাড়ইমারী গ্রামের হিছাব উদ্দিন প্রামাণিকের মেয়ে ও ভাড়ইমারী রিয়াজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, শেফা সোমবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে এসে দুপুরের খাবার খেয়ে নিজ কক্ষে বিশ্রাম নিতে যায়। রাত ৯টা পর্যন্ত তার সাড়াশব্দ না পেয়ে পরিবারের লোকজন দরজা ভেঙে ভেতরে গিয়ে দেখে ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলে আছে। উদ্ধার করে রাত ১০টার দিকে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

জানা গেছে, শেফার তিন মাস আগে বিয়ে হয়েছিল। কেন সে আত্মহত্যা করেছে কেউ বলতে পারছে না। স্বামীর সঙ্গে ঝামেলা হয়েছে কি না এটাও নিশ্চিত করে বলতে পারেনি কেউ।

ভাড়ইমারী রিয়াজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম জানান, শেফা আক্তার তার বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। খুব মেধাবী শিক্ষার্থী ছিল। সোমবারও ইংরেজি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। আজ মঙ্গলবার সকালে জানতে পারি সে আত্মহত্যা করেছে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com