দুদকের মামলায় সাবেক পোস্ট মাস্টারের ৯ বছরের জেল

নোয়াখালী জজ আদালত।
নোয়াখালী জজ আদালত।পুরোনো ছবি

নোয়াখালীতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় শ্রীবাস চন্দ্র দে নামে বরখাস্তকৃত এক পোস্ট মাস্টারকে ৯ বছরের জেল ও ২৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।

আজ সোমবার বিকালে নোয়াখালী বিশেষ জজ আদালতের বিচারক এ এন এম মোরশেদ খান এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত শ্রীবাস চন্দ্র দে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার রাধাপুর গ্রামের নারায়ণ চন্দ্র দের ছেলে। তিনি চন্দ্রগঞ্জের দত্তপাড়া উপ-ডাকঘরের পোস্ট মাস্টার ছিলেন।

নোয়াখালী দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মো. আবুল কাশেম রায়ের বিষয়টি কালবেলাকে নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ‘শ্রীবাস চন্দ্র দে কর্মরত অবস্থায় ছয়জন আমানতকারীর ৩৮ লাখ ২৭ হাজার টাকা পাশবহিতে লিপিবদ্ধ করলেও সরকারি কোষাগারে জমা না দিয়ে আত্মসাৎ করেন।’

এ ঘটনায় ২০১৯ সালের ১৩ মে লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। পরে বিশেষ মামলায় দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় নোয়াখালীর সহকারী পরিচালক সুবেল আহমেদ গত বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি তদন্ত শেষে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

রায়ে শ্রীবাস চন্দ্র দেকে দোষী সাব্যস্ত করে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ২৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ড, ৪২০ ধারায় এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

রায়ের সময় শ্রীবাস চন্দ্র দে আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে সাজা পরোয়ানামূলে তাকে নোয়াখালী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com