আওয়ামী লীগের ক্ষমতার উৎস ‘আয়নাঘর’ : রিজভী

বক্তব্য দিচ্ছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
বক্তব্য দিচ্ছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।ছবি : সংগৃহীত

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগ দেশের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে অকার্যকর করে দিয়েছে। বিচার বিভাগকে একটি 'জোকারি-মকারি' প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা হয়েছে। আদালতে এখন সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের বিচার হয় না, বরং মাফিয়া চক্রের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ কিছু লিখলে সেটির বিচার করতেই যেন বিচারকদের বেশি আগ্রহ।

রিজভী বলেন, আওয়ামী মাফিয়া চক্রের দুর্নীতি-দুরাচার আর অনাচারের বিরুদ্ধে কেউ যাতে মুখ খুলতে না পারে, এ কারণে মানুষকে গুম-অপহরণ করে আটকে রাখতে রাজধানীতে শেখ হাসিনার নির্দেশে গড়ে তোলা হয়েছে গোপন বন্দিশালা ‘আয়নাঘর’। বিএনপির সকল রাজনৈতিক ক্ষমতার উৎস জনগণ, আর শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন চক্রের ক্ষমতার উৎস আয়নাঘর।

আজ বুধবার সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রিজভী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, গত ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে যুক্তরাজ্য বিএনপি অয়োজিত জনাকীর্ণ এক আলোচনা সভায় তারেক রহমান এই নিশিরাতের গণশত্রু সরকারকে হটিয়ে ভোটাধিকার আদায় করতে রাজপথ দখলের জন্য দেশবাসীর প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানিয়েছেন। তার এই আহ্বানে সাড়া দেওয়ার জন্য আমি প্রত্যেক দেশপ্রেমিক জনতার প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

রিজভী বলেন, এক্ষুনি এই সর্বভূক লুটেরা খুনি দুঃশাসক দুরাচারী সরকারকে হটাতে না পারলে দুর্ভিক্ষ-মন্বন্তরে প্রাণ হারাতে হবে বেঘোরে। গুম, খুন, লুটপাট, ভোট ডাকাতি, কেন্দ্রীয় ব্যাংক লুট, অর্থ পাচার, চাপাবাজি, মিথ্যাবাজি, সীমাহীন মূল্যস্ফীতি, ধোঁকাবাজির রাজত্ব চলছে সারা দেশে। এখনই দেশের রাজকোষ খালি হয়ে গেছে। ব্যাংকগুলো ধ্বংস হয়ে গেছে। তেল-গ্যাস কিনতে পারছে না, বিদ্যুৎ দিতে পারছে না। মিল-কলকারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ভয়াবহ খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এবং তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদসহ তাদের নেতারা প্রতিনিয়ত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সম্পর্কে মনগড়া মিথ্যাচার অপপ্রচার করে আসছেন। তারেক রহমানের যুগান্তকারী সফল নেতৃত্বে এবং নির্দেশনায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে অভাবনীয় জনজোয়ার দেখে ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে আবোলতাবোল বকছেন তারা।

‘পতনের ভয়ে আর্তনাদ করছেন। দুর্নীতির উল্লম্ফন এবং উন্নয়নের ফানুস উড়িয়ে কোনো কাজ হচ্ছে না দেখে প্রায় প্রতিদিন অসত্য, বিভ্রান্তমূলক, মনগড়া ও মিথ্যাচার করছেন। প্রতিনিয়ত তারা লোক হাসানোর পাত্র হচ্ছেন।’

বক্তব্য দিচ্ছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
বেসামাল হয়ে পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী : রিজভী

যুবদলের সাবেক সহসভাপতি আলী আকবর চুন্নুকে ডিবি পরিচয়ে তুলে নেওয়া, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সহসভাপতি রফিক হাওলাদার ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক সাবেক কমিশনার হারুন উর রশীদ হারুনকে গ্রেপ্তারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান রিজভী। তিনি বলেন, আলী আকবর চুন্নুকে অবিলম্বে পরিবারের কাছে হস্তান্তরের জোর আহ্বান জানাচ্ছি। রফিক হাওলাদার ও হারুন উর রশীদ হারুনের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি করছি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূঁইয়া, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, কেন্দ্রীয় নেতা আমিনুল ইসলাম, তারিকুল আলম তেনজিং, স্বেচ্ছাসেবক দলের ডা. জাহেদুল কবির জাহিদ প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com