বিএনপি নেতাকর্মীদের মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকার শপথ করালেন আমান

বুধবার এক যৌথ কর্মিসভায় কথা বলেন আমান উল্লাহ আমান।
বুধবার এক যৌথ কর্মিসভায় কথা বলেন আমান উল্লাহ আমান। ছবি : কালবেলা

দলীয় নেতাকর্মীদের মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকার শপথ পাঠ করিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান বলেছেন, সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হয়ে গেছে। এখন একটাই দাবি, এই ফ্যাসিস্ট আওয়ামী সরকারের পদত্যাগ। এর জন্য আমাদের রাজপথে দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

আজ বুধবার বিকেলে ভাটারার ছোলমাইদে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির ভাটারা, উত্তরা পূর্ব, উত্তরা পশ্চিম ও বিমানবন্দর থানা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের যৌথ কর্মিসভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই আওয়ামী সরকার সারা দেশে হত্যা, গুম, খুন করে তাদের হাত এখন রক্তে রঞ্জিত। পুরো দেশের মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। আওয়ামী সরকারের লুটপাটের কারণে দেশের মানুষ দুর্ভিক্ষের মধ্যে পড়েছে। দ্রব্যমূল্য আজ খেটে খাওয়া মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে। তাই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে প্রয়োজনে আরেকটি যুদ্ধ করতে হবে।

আমান উল্লাহ বলেন, আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথে বিএনপির কোটি কোটি সমর্থক রাস্তায় নামবে। হাসিনাকে ক্ষমতায় রেখে এ দেশে কোনো নির্বাচন নয়। নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হকের সঞ্চালনায় কর্মিসভায় আরও বক্তব্য রাখেন- ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আতিকুল ইসলাম মতিন, আতাউর রহমান, এজিএম সামসুল হক, সাবেক যুবনেতা এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলনেতা আজিজুর রহমান মুছাব্বির, মহানগর সদস্য আব্দুস সালাম সরকার, এবিএমএ রাজ্জাক, আফাজউদ্দিন, কাউন্সিলর আলী আকবর আলী, ভাটারা থানা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম মিয়া, বিমানবন্দর থানা বিএনপির দেলোয়ার হোসেন দিলুসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

আমিনুল হক বলেন, প্রয়োজনে রক্ত দিব। আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রামে আমরা সামনের সারিতে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করব।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com