সংবিধান নির্বাহী বিভাগের অধীন হয়ে পড়েছে : আ স ম রব

জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব।
জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব। পুরোনো ছবি

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেছেন, ‘জনগণের ভোটাধিকার, সমাবেশের অধিকার ও আইনের শাসন তথা প্রজাতন্ত্রের সংবিধান এখন নির্বাহী বিভাগের অধীন হয়ে পড়েছে। রাষ্ট্রের শাসনব্যবস্থা আর আইন দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে না, পরিচালিত হচ্ছে সরকারের ইচ্ছার ওপর।’

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় যুব পরিষদের ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব।
সরকারকে রক্তপাতের পথ পরিহার করতে হবে : আ স ম রব

আ স ম রব বলেন, ‘জনগণের ভোটবিহীন অনির্বাচিত সরকার রাষ্ট্রের তিনটি মৌলিক অঙ্গকে ধ্বংস করে দিয়ে রাষ্ট্রকে ভারসাম্যহীন করে ফেলেছে। এ ধরনের ভারসাম্যহীন রাষ্ট্রে গণতন্ত্রহীনতার কারণে অভ্যন্তরীণ স্থিতিশীলতা এবং স্বাধীনতা ও দেশের অখণ্ডতা হুমকির মুখে পড়তে পারে।’

জেএসডি সভাপতি আরও বলেন, ‘সরকার ক্ষমতাকে ধরে রাখার জন্য শুধু বলপ্রয়োগ বা শক্তি প্রয়োগের ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে। সরকার গণবিচ্ছিন্ন হওয়ার কারণে বিরোধীদলের যে কোনো সমাবেশে এমনকি মোমবাতি জ্বালানোর কর্মসূচিতেও সরকারের লাঠিয়াল বাহিনী বেপরোয়া হামলা চালিয়ে মানুষকে রক্তাক্ত করছে। প্রতিদিন মানুষ হত্যা করে ক্ষমতায় থাকার সরকারের দুঃস্বপ্নকে ধূলিসাৎ করে দিতে ছাত্র-যুবশক্তি ও সর্বসাধারণকে রাজপথে নামতে হবে।’

জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব।
নিরপেক্ষ সরকারই ইসির ১৪ চ্যালেঞ্জের সমাধান : আ স ম রব

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন শামসুল আলম নিক্সন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জোনায়েদ সাকী, অ্যাডভোকেট ছানোয়ার হোসেন তালুকদার, বেগম তানিয়া রব ও শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন। সভায় আরও বক্তব্য দেন অ্যাডভোকেট সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলাল, মোশাররফ হোসেন, যুবনেতা আবির আহমেদ, মাহফুজুল আলম জাহিদ, শ্যামল সরকার, আনোয়ার হোসেন, হান্নান হাওলাদার, জিএম সাইমুন ইসলাম, জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com