কেন রাজনীতি থেকে সরে গেলেন সোহেল তাজ?

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ।
সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ।ছবি: সংগৃহীত

রাজনীতি থেকে সরে আসার পেছনের কারণ হিসেবে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় নিজের ব্যর্থতাকে দায়ী বলে মনে করেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ। সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘ ২০০৮ সালে নির্বাচনের আগে ক্ষমতসীন আওয়ামী লীগের ইশতাহারে কিছু যুগান্তকারী পরিবর্তনের কথা বলা হয়েছিল। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল সুশাসন প্রতিষ্ঠা ও বিচার ব্যবস্থার স্বাধীনতা। তাই শুরুতে এটা দেখে আমি উৎসাহিত হলেও পরে মনে হয়েছে আমার পক্ষ থেকে হয়তো তা বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না। তাই আমি সরে এসেছি। কারণ আমি যদি দায়িত্বে বহাল থেকে নিষ্ক্রিয় থাকতাম তবে কি তা ভালো হতো? ’’

মন্ত্রী থাকা অবস্থায় বাংলাদেশের বাস্তবতার প্রেক্ষাপটে আমার আশা ছিল অনেক বড়। তা হলো দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ, মেধা ভিত্তিক যোগ্যতা যাচাই, আইনের শাসন থাকবে, সবাই সুবিচার পাবে। কিন্তু তা বাস্তবায়নে আমি ব্যর্থ ছিলাম।

সোহেল তাজ

তিনি বলেন, ‘কাজ করতে গিয়ে অনেক ক্ষেত্রে আমি হতাশ হয়েছি। দুর্নীতি হচ্ছে বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা। দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনা যদি শিকড় থেকে তুলে ফেলা না হয় তবে উন্নয়ন সম্ভব না। আর এজন্য পদ্ধতিগত পরিবর্তন, ন্যায়বিচার ও সুশাসন প্রতিষ্ঠার প্রয়োজন। যোগ্যতার ভিত্তিতে যদি মানুষকে বিচার করা যায় তবেই সুন্দর বাংলাদেশ গড়া সম্ভব।’

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com