যুবলীগের নিখিলসহ ৫০০ জনের নামে বিএনপির মামলার আবেদন

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল।
যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল। পুরোনো ছবি

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সমাবেশে হামলার ঘটনায় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলসহ ২০ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৪০০ থেকে ৫০০ জনের নামে মামলার আবেদন করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার অতিরিক্ত মহানগর হাকিম মো. তোফাজ্জল হোসেনের আদালতে ওমর ফারুক ফারুকী এ মামলার আবেদন করেন। বিএনপির আন্তর্জাতিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার বিষয়টি জানিয়েছেন।

এদিন আদালত বাদীর জবানবন্দি নেন। এরপর শুনানি শেষে আদালত এ বিষয়ে আদেশ পরে দেবেন বলে জানান।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল।
হামলা-মামলা করে কোনো স্বৈরশাসক ক্ষমতায় থাকতে পারেনি : গণঅধিকার পরিষদ

যা বলা হয়েছে মামলার অভিযোগে

গত ১৫ সেপ্টেম্বর মিরপুর পল্লবী জোনে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি শান্তিপূর্ণ সমাবেশে করে। সেখানে হঠাৎ কামাল আহমেদ মজুমদার, ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লা, আগাখান মিন্টু , মাইনুল হোসেন খান নিখিল, এম এ মান্নান কচি, ইসমাইল হোসেনসহ ৪০০ থেকে ৫০০ অজ্ঞাতপরিচয়ে আওয়ামী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কর্মীরা আক্রমণ করেন।

তারা আক্রমণ করে শান্তিপূর্ণ সভাকে পণ্ড করেন এবং অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঢাকা উত্তর বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর আক্রমণ করেন। সেখানে জসিম, রনি, নয়নসহ বিএনপির অসংখ্য নেতাকর্মীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত, গুরুতর জখম ও হত্যাচেষ্টা চালান তারা।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল।
বিএনপি-ছাত্রদল নেতাদের বাড়িতে হামলায় জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবি

মামলার আসামি কারা

শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহম্মেদ মজুমদার, ঢাকা-১৬ আসনে সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লা, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, ঢাকা উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ মান্নান কচি, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক তাইজুল ইসলাম চৌধুরী বাপ্পি, রূপনগর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী রজ্জব হোসেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা কাশেম মোল্লা।

এ ছাড়া মামলায় আরও নাম রয়েছে ঢাকা-১৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য তুহিন, আওয়ামী নেতা শেখ মান্নান, আনোয়ার হোসেন লিটু, সালা উদ্দিন রবিন, ঢাকা উত্তর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইসহাক মিয়া, স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোবাশ্বের চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা হাজি তোফাজ্জল হোসেন টেনু, রূপপুর থানা যুবলীগের সভাপতি জাকির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক খোকন, ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইব্রাহিম ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ সালমা চৌধুরী।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com