চিকিৎসক শাকিরের সহযোগী ভিলার স্বীকারোক্তি

চিকিৎসক শাকিরের সহযোগী ভিলার স্বীকারোক্তি
পুরোনো ছবি

রাজধানীর রামপুরা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনের মামলায় চিকিৎসক শাকির বিন ওয়ালীর সহযোগী আবরারুল হক ভিলা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

গতকাল সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রহমান ছিদ্দিকীর আদালত তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। আজ মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কথিত হিজরতের নামে ঘর ছেড়ে যাওয়া কুমিল্লার সাত তরুণ শাকিরের সহযোগিতায় ঘর ছাড়েন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, রিমান্ড চলাকালে আসামি ভিলা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হন। এরপর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাউন্টার টেররিজম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের পুলিশ পরিদর্শক এস এম মিজানুর রহমান ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

চিকিৎসক শাকিরের সহযোগী ভিলার স্বীকারোক্তি
সেই চিকিৎসকের ডাকে ‘ঘরছাড়া’ কুমিল্লার ৭ তরুণ

এর আগে ১৩ আগস্ট রামপুরা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ পরিদর্শক কাজী মিজানুর রহমান মামলা করেন। পর দিন গত ১৪ সেপ্টেম্বর শাকির ও ভিলার পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

কথিত হিজরতের নামে ঘর ছেড়ে যাওয়া কুমিল্লার সাত তরুণের সহযোগী শাকির। তিনি দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে জঙ্গি সংগঠনটির জন্য সদস্য সংগ্রহ, সামরিক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা ও কথিত হিজরতে যেতে সহায়তা করতেন।

চিকিৎসক শাকিরের সহযোগী ভিলার স্বীকারোক্তি
চিকিৎসক শাকিরসহ দুজন ৫ দিনের রিমান্ডে

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com