রাজধানী থেকে মোটরসাইকেল চুরি, বিভিন্ন জেলায় বিক্রি

ডিবির অভিযানে গ্রেপ্তার চক্রের পাঁচ সদস্য।
ডিবির অভিযানে গ্রেপ্তার চক্রের পাঁচ সদস্য। ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে মোটরসাইকেল চুরি করে বিক্রি করা হচ্ছে নোয়াখালী ও তার আশপাশের জেলায়। পরে বিভিন্ন হাত বদল করে এসব চোরাই মোটরসাইকেল ব্যবহার করা হচ্ছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগের সংঘবদ্ধ অপরাধ ও গাড়ি চুরি প্রতিরোধ টিম অভিযান চালিয়ে ১৫টি চোরাই মোটরসাইকেলসহ চোর চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে।

গতকাল বুধবার রাজধানী ও নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানা এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানানো হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার গোয়েন্দাপ্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

ডিবির অভিযানে গ্রেপ্তার চক্রের পাঁচ সদস্য।
ফেনীতে বলাৎকারের ঘটনায় মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার

গ্রেপ্তার পাঁচজন হলেন মোহাম্মদ আলী, আনোয়ার হোসেন রুবেল, মো. সামছুল হুদা, কামাল হোসেন আকাশ ও মিজান। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৫টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

ডিবিপ্রধান বলেন, গত ২০ ফেব্রুয়ারি উত্তরা দক্ষিণখান থানায় একটি মোটরসাইকেল চুরির মামলা করেন এক ভুক্তভোগী। পরে মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে গোয়েন্দা উত্তরা বিভাগ এই চোর চক্রকে শনাক্ত করে।

হারুন অর রশীদ বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার মোহাম্মদ আলী জানিয়েছেন, তিনি ও তার সহযোগীরা কয়েক বছর ধরে ঢাকার উত্তরাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে মোটরসাইকেল চুরি করে নোয়াখালী জেলার চাটখিল ও সোনাইমুড়ী থানা এলাকায় বিক্রি করত।

তিনি বলেন, নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানাধীন পূর্ব বাজারসংলগ্ন আনোয়ার হোসেনের গ্যারেজে চোরাই মোটরসাইকেল আছে। গ্রেপ্তার মোহাম্মদ আলীর তথ্যের ভিত্তিতে চোর চক্রের মূলহোতা আনোয়ার হোসেন রুবেলসহ অন্য আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে ডিএমপির দক্ষিণখান থানায় মামলা হয়েছে।

ডিবির অভিযানে গ্রেপ্তার চক্রের পাঁচ সদস্য।
ভুল কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী, নিজ কেন্দ্রে পৌঁছে দিল পুলিশ

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ডিবির যুগ্ম কমিশনার খন্দকার নুরুন্নবী, ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা (উত্তরা) বিভাগের ডিসি আকরামুল হোসেন, ডিসি মিডিয়া ফারুক হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার আছমা আরা জাহান, সহকারী পুলিশ কমিশনার হাবিবুর রহমান।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com