বর্ণাঢ্য আয়োজনে জেএমআই গ্রুপের বিশ্ব শান্তি দিবস উদযাপন

জেএমআই গ্রুপের বিশ্ব শান্তি দিবস উদযাপন।
জেএমআই গ্রুপের বিশ্ব শান্তি দিবস উদযাপন।

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে রাজধানী ঢাকায় পালিত হয়েছে জাতিসংঘ ঘোষিত ‘বিশ্ব শান্তি দিবস-২০২২’। প্রতি বছরের মতো এবারও যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালন করেছে জেএমআই গ্রুপ।

এ উপলক্ষে আজ বুধবার সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের ‘আব্দুস সালাম’ মিলনায়তনে আয়োজিত একটি আলোচনা সভায় বক্তারা জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে মানবতার সুখ শান্তি অর্জনে জনমত সৃষ্টির লক্ষ্যে বিশ্ব শান্তি দিবস পালনের গুরুত্ব তুলে ধরেন।

সভাপতির বক্তব্যে জেএমআই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক বলেন, কোভিড-১৯ এর কারণে সারা বিশ্বে অর্থনৈতিক মন্দার সৃষ্টি হয়েছিল। সেই বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই আবার শুরু হয়েছে ইউক্রেন ও রাশিয়ার যুদ্ধ। এই যুদ্ধের ফলে সুদূরে থেকেও আমরা ক্ষতির শিকার হচ্ছি। গত ৪-৫ মাসের ব্যবধানে পণ্য আমদানি-রপ্তানিতে আন্তর্জাতিক পরিবহন খরচ ৬ থেকে ৭ গুন বেড়েছে। পাশাপাশি তিন মাস আগে ৮৬ টাকা প্রতি ডলারে খোলা এলসির বিপরীতে এখন পেমেন্ট দিতে হচ্ছে ১১০ টাকার ওপরে। ফলে এদেশের ব্যবসায়ীরা প্রতিনিয়ত বড় অংকের লোকসান গুনতে বাধ্য হচ্ছেন। এ অবস্থায় বিশ্ব শান্তির জন্য আমরা চাই, এই মুহূর্ত থেকে যুদ্ধ বন্ধ হোক। আলোচনাই হোক সব সমস্যার সমাধান।

আবদুর রাজ্জাক আরও বলেন, গত এক যুগের বেশি সময় ধরে জেএমআই গ্রুপ বিশ্ব শান্তি দিবস পালন করে আসছে। আমরা চাই এই একটি দিনের অনুশীলনকে পর্যায়ক্রমে প্রতিটি দিন তথা ৩৬৫ দিনের অনুশীলনে পরিণত করে পরিপূর্ণভাবে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠা হোক। আসুন হাতে হাত মিলিয়ে, উদার মানসিকতা নিয়ে নির্যাতিতদের পাশে দাঁড়িয়ে আমরা শান্তি এবং নিরাপত্তার মৌলিক অধিকারগুলোকে সুপ্রতিষ্ঠিত করার লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হই। বর্ণবাদমুক্ত পৃথিবী গড়তে আমাদের বিজয় অবশ্যম্ভাবী।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পিস অ্যান্ড কনফ্লিক্ট স্টাডিজ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. তৌহিদুল ইসলাম এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পিস অ্যান্ড কনফ্লিক্ট স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান সাইফুদ্দিন আহমেদ।

সমাপনী বক্তব্যে জেএমআই গ্রুপের চেয়ারম্যান জাবেদ ইকবাল পাঠান বলেন, জেএমআই পরিবারের প্রতিটি সদস্য জাতিসংঘের শান্তি দিবসের প্রতিপাদ্যবিষয়কে সমুন্নত রাখতে বদ্ধপরিকর। বর্ণবাদ মোকাবিলায় তাই আমাদের আজকের এই প্রচেষ্টা সময়োপযোগী বলে আমি মনে করি।

জেএমআই গ্রুপের উপ-মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) জনাব আব্দুল্লাহ আল ফারুকীর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন নিপ্রো জেএমআই ফার্মার পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান পাটোয়ারী এবং নিপ্রো জেএমআই মেডিকেল লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক জনাব কুনিও (কেনি) তাকামিদো।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন জেএমআই সিরিঞ্জেস অ্যান্ড মেডিকেল ডিভাইসেস লিমিটেডের পরিচালক (অর্থ) হিরোশি সাইতো, জেএমআই গ্রুপের উপদেষ্টা (প্রশাসন) এম এ রাজেক, জেএমআই বিল্ডার্স অ্যান্ড কন্সট্রাকশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মহিউদ্দিন আহমেদ, জেএমআই গ্রুপের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম, জেএমআই সিরিঞ্জেস অ্যান্ড মেডিকেল ডিভাইসেস লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক অভিজিৎ পাল এবং জেএমআই গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক (মানবসম্পদ) জনাব মোহাম্মদ মাসউদ হাসান।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com