শিল্পকলায় পূর্ণিমা তিথির সাধুমেলার আসর

শিল্পকলায় পূর্ণিমা তিথির সাধুমেলার আসর

বাউল গানের সুরে আজ শুক্রবার বিকেলে মুখর হয়ে ওঠে রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমির বাউলকুঞ্জ। একাডেমির প্রযোজনা বিভাগের বাউল গানের নিয়মিত আয়োজন ‘পূর্ণিমা তিথির সাধুমেলা’র তেতাল্লিশতম আসর বসে। সাধুমেলায় শিল্পীরা একের পর এক লালনের গানে সবাইকে মুগ্ধ করেন। নিজেদের শ্বেতশুভ্র রঙে সাজালেও সুরের ঝর্ণাধারায় আর সাঁইজির ভাববাণীতে রঙিন করে তোলেন শ্রোতাদের হৃদয়।

শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন একাডেমির প্রযোজনা বিভাগের পরিচালক সোহাইলা আফসানা ইকো। অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লালন গবেষক সৈয়দ জাহিদ হাসান। প্রথম পর্বে বিভিন্ন শিরোনামে লালনসংগীত পরিবেশন করেন রুমা বাউল, উপমা আক্তার বৃষ্টি, সুবর্ণ বাউল, বাউল মিরাজ খ্যাপা এবং পিউ বাউল।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বিভিন্ন জেলার বিশিষ্ট শিল্পীদের কণ্ঠে পরিবেশিত হয় ‘দয়াল চাঁদ আসিয়া আমায় পার করে নিবে’ ও ‘মিলন হবে কত দিনে’ শিরোনামে দলীয় সংগীত।

অনুষ্ঠানজুড়ে পর্যায়ক্রমে চলে একক, দলীয় ও সমবেত সংগীত। পরিবেশনায় অংশ নিয়ে দর্শক মাতান জেলা থেকে আগত জহুরা ফরিরানী (কুষ্টিয়া), ফকির আনুশাহ্ (কুষ্টিয়া), সমীর বাউল (মাগুরা), শফি মন্ডল (ঢাকা), টুনটুন ফকির (কুষ্টিয়া)। এ ছাড়াও সংগীত পরিবেশন করেন আয়নাল হক বাউল, বাউল মিতুল, শ্রী কৃষ্ণ বাউল, বাউল লাভলী শেখ, মানিক বাউল। সমবেত সংগীতে অংশ নিয়ে অনুষ্ঠান মুখরিত করেন করিম বাউল, সিদ্দিকুর রহমান, মিতু মন্ডল, শামীম বাউল, ইভা বাউল, ফারুক নরী এবং লিনা খাতুন প্রমুখ।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
kalbela.com